কোভিড আবহে চুপিসাড়ে বিয়ে সারলেন ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

Boris-Johnson-and-Carrie-Symonds.jpg

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও ক্যারি সাইমন্ডস

Onlooker desk: চুপিচুপি গাঁটছড়া বেঁধে ফেললেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। শনিবার ওয়েস্টমিনস্টার ক্যাথিড্রালে এক গোপন অনুষ্ঠানে বাগ্দত্তা ক্যারি সাইমন্ডসকে বিয়ে করেন বরিস। তবে ডাউনিং স্ট্রিটের অফিসের এক মুখপাত্র এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে অস্বীকার করেছেন।
যে দুই সংবাদমাধ্যমে এই খবর প্রকাশিত হয়েছে, দু’টিই জানিয়েছে, শেষ মুহূর্তে অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। এমনকী জনসনের অফিসের প্রবীণ সদস্যরাও বিয়ের ব্যাপারে কিছু জানতেন না বলে খবর।
কোভিড পরিস্থিতিতে ইংল্যান্ডে বিয়ের অনুষ্ঠানে ৩০ জনের বেশি লোকের জমায়েতে অনুমতি নেই। শনিবার দুপুর দেড়টা নাগাদ ক্যাথিড্রালটি হঠাৎ বন্ধ করে দেওয়া হয়। লিমুজিনে চড়ে বিয়ের সাদা পোশাকে হাজির হন সাইমন্ডস। তবে ভেল না-থাকায় স্পষ্টই দেখা গিয়েছে তাঁকে।
৫৬-র বরিস ২০১৯-এ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই ডাউনিং স্ট্রিটে ৩৩-এর সাইমন্ডসের সঙ্গে থাকছিলেন। গত বছর তাঁরা সম্পর্কে থাকার কথা স্বীকার করে জানান, শীঘ্রই সন্তান আসতে চলেছে পরিবারে। সে বছরই এপ্রিলে জন্ম হয় তাঁদের পুত্র উইলফ্রেড লরি নিকোলাস জনসনের। এ মাসের গোড়ায় একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল, আগামী বছর জুলাইয়ে বিয়ের জন্য আমন্ত্রণ পাঠানো হয়েছে বন্ধু-পরিজনদের।
এর আগে আইনজীবী মেরিনা হুইলারের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ ছিলেন বরিস জনসন। তাঁদের চার ছেলেমেয়ে রয়েছে। ২০১৮-র সেপ্টেম্বরে বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করেছিলেন দম্পতি। ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত জীবন কোনওদিনই খুব সুস্থির নয়। নানা ওঠাপড়ার মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন তিনি। এ বার নতুন জীবন তাঁকে স্থিতি দেয় কি না, সেটাই দেখার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top