ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনায় পাকিস্তানে মৃত অন্তত ৩০

train-accident-in-Pakistan.jpg

দুর্ঘটনাস্থল। (ইনসেটে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের টুইট)

Onlooker desk: আজ, সোমবার সকালে পাকিস্তানে দু’টি যাত্রিবাহী ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে মারা গেলেন অন্তত ৩০ জন, আহত বহু। ঘটনাটি ঘটেছে আপার সিন্ধের ঘোটকি জেলার ধারকিতে।
পাকিস্তান রেলওয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, করাচি থেকে মারগোধা যাচ্ছিল একটি মিল্লাত এক্সপ্রেস ট্রেন। সেটি হঠাৎ লাইনচ্যুত হয়ে ডাউন ট্র্যাকে উঠে পড়ে। সেই সময় রাওয়ালপিন্ডি থেকে আসছিল স্যর সৈয়দ এক্সপ্রেস। রইতি স্টেশনের কাছে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় ট্রেন দু’টির। দু’টি ট্রেনেরই সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়। প্রায় আটটি বগি সম্পূর্ণ দলা পাকিয়ে গিয়েছে। খান ত্রিশেক দেহ উদ্ধার উদ্ধার করা গেলেও বহু যাত্রী এখনও আটকে। ভিতর থেকে তাঁদের আর্ত চিৎকার শোনা গেলেও উদ্ধার করাই বড় চ্যালেঞ্জ বলে জানিয়েছেন ঘোটকির এসএসপি উমর তুফয়েল। তবে ভারী যন্ত্রের সাহায্যে তাঁদের বের করে আনার চেষ্টা চলছে। রোহরি থছেকে একটি রিলিফ ট্রেন পাঠানো হয়েছে ঘটনাস্থলের উদ্দেশে। করাচি, সুক্কুর, ফৈজলাবাদ এবং রাওয়ালপিন্ডিতে হেল্পলাইন কেন্দ্র তৈরি করা হয়েছে। স্যর সৈয়দ এক্সপ্রেসের কয়েকজন যাত্রীকে সাদিকাবাদ রেল স্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
ঘোটকির ডেপুটি কমিশনার উসমান আবদুল্লাহ বলেন, ‘কাজটা খুবই চ্যালেঞ্জিং। জেলায় ইমার্জেন্সি ঘোষণা করা হয়েছে। সমস্ত চিকিৎসক ও প্যারা মেডিক্যাল কর্মীদের প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে।’ তবে কতক্ষণে উদ্ধারকাজ সম্পন্ন করে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করা সম্ভব হবে, সেটা জানাতে পারেননি কোনও আধিকারিক।
ঘটনায় শোক প্রকাশ করে জরুরি সব রকম ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছেন সিন্ধের মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলি শাহ। টুইটে উদ্বেগ প্রকাশ করে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top