২১৬ দিন ধরে এইচআইভি আক্রান্তের শরীরে বাসা করোনার, ৩০ বার ভোলবদল, জানাল গবেষণা

HIV-COVID.jpg

Onlooker desk: বছর দেড়েক আগে ‘আত্মপ্রকাশে’র পর নভেল করোনাভাইরাস (coronavirus) এতবার ভোল বদলেছে, যা দেখে বিশেষজ্ঞরাও হতবাক। এ বার সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় দেখা গেল, এইচআইভি পজিটিভ (hiv positive) এক মহিলার শরীরে তা ২১৬ দিন ধরে বাসা বেঁধে রয়েছে। গবেষণাটি এখনও আন্তর্জাতিক মহলে যাচাই না হলেও, তা থেকে জানা গিয়েছে, ভাইরাসটি মহিলার শরীরের ভিতরে অন্তত ৩০ বার মিউটেট করেছে। বৃহস্পতিবার এই গবেষণার কথা সামনে এসেছে।
বছর ৩৬-এর ওই মহিলার নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার বাসিন্দা বলে জানানো হয়েছে। ৩০ বার ভোল বদলের মধ্যে ১৩টিই ভাইরাসের স্পাইক প্রোটিনে। যার জেরে সে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এড়িয়ে ক্ষতিসাধন করতে পারে। বাকি পরিবর্তন তার আচরণগত।
রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম, এমন মানুষদের শরীরে ভাইরাসটি দীর্ঘদিন ধরে বাসা বেঁধে রয়েছে , এমন রিপোর্ট তাঁরা পাচ্ছেন বলে ওই পত্রটির গবেষকরা জানিয়েছেন। তবে ওই মহিলার শরীর থেকে মিউটেট করা ভাইরাস অন্য কাউকে সংক্রামিত করেছে কি না, সেটা ওই গবেষণা থেকে স্পষ্ট নয়।
শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকায় এইচআইভি পজিটিভ (hiv positive) রোগীদের মধ্যে করোনার সংক্রমণে মৃত্যুর আশঙ্কা ২.৭৫ গুণ বেশি। তবে ডায়াবিটিসের মতো কোমর্বিডিটি থাকলে তাতে মৃত্যুর ভয় আরও বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top