শ’দেড়েক ভারতীয়কে তুলে নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ তালিবানের। পরে মুক্তি

Taliban-Kabul1.jpg

Onlooker desk: কাবুল বিমানবন্দরের গেট থেকে শ’দেড়েক ভারতীয় নাগরিককে (Indian citizens) শনিবার তুলে নিয়ে যায় তালিবান। তাঁরা ভারতে ফেরার বিমান ধরার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। তবে ওই ভারতীয় নাগরিকরা (Indian citizens) কোনও বিপদের সম্মুখীন নন বলে জানিয়েছিল কেন্দ্র। তাঁদের অবশেষে মুক্ত করা হয়েছে। শীঘ্রই আফগানিস্তান ছাড়বেন এঁরা।
বিমানবন্দরের কাছে একটি থানায় ওই ভারতীয় নাগরিকদের (Indian citizens) জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ব্যাকডোর ডিপ্লোম্যাসির মাধ্যমে তাঁদের ফেরানোর ব্যাপারে আলোচনা চলছে বলে কেন্দ্রীয় সরকারি একটি সূত্রে খবর মিলেছিল।
প্রাথমিক ভাবে কাবুলের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়, দেড়শোরও বেশি মানুষকে অপহরণ করেছে তালিবান (Taliban)। তাঁদের মধ্যে ভারতীয়রাও রয়েছেন। তালিবান (Taliban) অবশ্য এই অভিযোগ অস্বীকার করে। একটি সংবাদমাধ্যমের সাংবাদিক তালিবানের এক মুখপাত্রকে উদ্ধৃত করে তাদের অস্বীকারের কথা জানান।
এ দিনই ভারতীয় বায়ুসেনার একটি এয়ারক্রাফটে ৮৫ জন নাগরিককে (Indian citizens) আফগানিস্তান থেকে বের করা হয়েছে। বিমানটি তাজিকিস্তানে নিরাপদে ল্যান্ড করে। তখনই জানানো হয়েছিল, আরও নাগরিককে ধস্ত দেশটি থেক মুক্ত করার জন্য অপেক্ষা করছে অন্য একটি বিমান।
শনিবার সকালেই ভারত সরকারের সূত্রে জানা গিয়েছে, যত বেশি সম্ভব মানুষকে আফগানিস্তান থেকে বের করে আনার চেষ্টা চলছে। সে জন্য কাবুল বিমানবন্দরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তাঁদের।
আফগানিস্তানে কর্মরত এ দেশের সমস্ত কূটনৈতিক কর্মীকে বের করে এনেছে ভারত। তার পরেও হাজার খানেক ভারতীয় (Indian citizens) কাবুলিওয়ালার দেশে থেকে গিয়েছেন। কিন্তু তাঁদের সকলেই দূতাবাসে নাম নথিভুক্ত করাননি বলে চিহ্নিত করে বের করে আনা চ্যালেঞ্জের কাজ।
আটকে পড়া ভারতীয়দের মধ্যে শ’দুয়েক শিখ ও হিন্দু কাবুলের একটি গুরুদ্বারে আশ্রয় নিয়েছেন। বুধবার রাতে একদল লোক তাঁদের সঙ্গে গিয়ে কথা বলেছে। তারা তালিবানের একটি দল বলে জঙ্গি গোষ্ঠীর এক মুখপাত্রের দাবি। আশ্রিতদের তারা আশ্বস্ত করেছে। জানিয়েছে, চিন্তার কোনও কারণ নেই।
পাশাপাশি তালিবানের রাজনৈতিক দপ্তর থেকে দিল্লিকে বার্তা পাঠানো হয়েছে। দূতাবাসের কর্মী-সহ কূটনীতিকদের আফগানিস্তান থেকে বের না-করার আবেদন জানিয়েছে তারা। তালিবানের দাবি, কর্মীদের নিরাপত্তার ব্যাপারে ভারতের কোনও চিন্তা নেই। যদিও তালিবানের আশ্বাসে আশ্বস্ত হতে পারেনি ভারত।
অথচ এই আশ্বাসবাণীর দিনকয়েক আগেই ভারতের অন্তত দু’টি কনস্যুলেটে ঢুকে তাণ্ডব চালিয়েছে তালিবান। এমনটা যে হবে, তা আশঙ্কা করেই কর্মীদের দেশ থেকে বের করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এক সিনিয়র অফিসার।
বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর জানিয়েছেন, সরকার অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে কাবুল তথা গোটা আফগানিস্তানের পরিস্থিতিতে নজর রেখেছে। তবে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে ভারতীয়দের বের করে আনার উপরে।
গত রবিবার কাবুলে প্রবেশ করে তালিবান। তার আগেই দেশ ছেড়ে পালান প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। তালিবানের দখলে যাওয়ার পরে চূড়ান্ত বিশৃঙ্খল অবস্থা তৈরি হয়েছে দেশজুড়ে। গোটা বিশ্বের নজর আপাতত আফগানিস্তানে।

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top