চিরস্মরণীয় বিমান যাত্রা! সাংসদ দয়ানিধিকে গন্তব্যে পৌঁছে দিলেন সাংসদ ‘ক্যাপ্টেন’ রাজীব প্রতাপ রুডি

WhatsApp-Image-2021-07-15-at-12.30.54-AM.jpeg

Onlooker desk: ঘণ্টাদুয়েক আগেই চলছিল গম্ভীর বিষয়ে গভীর আলোচনা। এস্টিমেটস কমিটির বৈঠক সেরে দিল্লি থেকে চেন্নাইয়ের বিমানে চেপে বসেন ডিএমকে সাংসদ দয়ানিধি মারান। কিন্তু সেখানে যে তাঁর জন্য এত বড় বিস্ময় অপেক্ষা করছিল, তা সেটা আর কে জানত!
মঙ্গলবার রাজধানী থেকে ইন্ডিগোর বিমানে চড়েন দয়ানিধি। যাবেন চেন্নাইয়ে, বাড়িতে। প্রথম রো-এ তাঁর আসন। কিছুক্ষণের মধ্যে সামনে এসে দাঁড়ান দীর্ঘদেহী, সুপুরুষ ক্যাপ্টেন। জিজ্ঞাসা করেন, ‘তা হলে! আপিনও এই বিমানেই যাচ্ছেন!’
গলাটা চেনা চেনা। কিন্তু ক্যাপ্টেনের মুখে মাস্ক। ঠিক ঠাহর করতে পারেননি দয়ানিধি। বেশ বিস্মিত মুখেই ঘাড় নেড়ে সম্মতি জানান ডিএমকে সাংসদ। এরপর বিস্ময় উড়ে আসে ক্যাপ্টেনের গলা থেকেও। ‘আপনি আমাকে চিনতে পারছেন না!’ সঙ্গে দুষ্টুমির হাসি।
এ বার আর বুঝতে অসুবিধা হয়নি দয়ানিধির। সামনে দাঁড়িয়ে রাজীব প্রতাপ রুডি। বিজেপির সাংসদ, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। খানিকক্ষণ আগে কমিটির বৈঠকে রুডির সঙ্গেও তো তর্ক চলেছে দয়ানিধির। আর ঘণ্টাকয়েকের মধ্যে এমন ভোলবদল! বিস্মিত দয়ানিধি গোটা ঘটনাটা জানান টুইটারে। লম্বা পোস্টের সঙ্গে পাইলটরূপী রুডির ছবি।
তিনি লেখেন — মাস্কের আড়ালে লুকোনো হাসির ঝলক দেখে বুঝি। সামনে দাঁড়ানো ক্যাপ্টেন আর কেউ নন, আমার কলিগ, সংসদের সিনিয়র সদস্য এবং প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী — আমার খুব ভালো বন্ধু থিরু রাজীব প্রতাপ রুডি।
মাত্র দু’ঘণ্টা আগে এস্টিমেটস কমিটির বৈঠকের আলোচনায় অংশ নিয়েছি দু’জনেই। এত অল্প সময়ের মধ্যে তাঁর এই ভোলবদল দেখে আমি নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছিলাম না।
দয়ানিধির বিস্ময় দেখে হেসে ফেলেন রুডি। বলেন, ‘আমি খেয়াল করেছি যে আপনি আমাকে চিনতে পারেননি। আমি মাঝেমধ্যেই বিমান উড়িয়ে নিয়ে যাই।’ ডিএমকে সাংসদ পোস্টে লেখেন — এত ভালো একজন বন্ধু এবং সহকর্মী আমাকে গন্তব্যে উড়িয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, এতে আমি সম্মানিত। আমার বাবা যখন কেন্দ্রীয় বাণিজ্য মন্ত্রী ছিলেন, রুডিজি তখন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে থেকেছেন।
দয়ানিধির সংযোজন — এই উড়ান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। ক’জন সাংসদ এ ভাবে কমার্শিয়াল বিমান ওড়ান? আমি নিশ্চিত, এই আলোচনা থেকে সহজে বেরোতে পারব না। আমাদের দিল্লি থেকে চেন্নাইয়ে নিরাপদে পৌঁছে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ সাংসদ, ক্যাপ্টেন রাজীব প্রতাপ রুডি।
রুডি বিহারের সাংসদ এবং বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র। অতীতে অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রীর দায়িত্ব সামলেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top