পুলিশের জালে অলিম্পিক জয়ী কুস্তিগীর সুশীল কুমার

Sushil-Kumar1.jpg

Onlooker desk: তাঁর সন্ধানে এক লক্ষ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছিল দিল্লি পুলিশ। এবার পুলিশের জালে ধরা পড়লেন অলিম্পিকে পদক জয়ী কুস্তিগীর সুশীল কুমার। শনিবার সন্ধ্যায় পাঞ্জাবের জলন্ধরের কাছ থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। অজয় কুমার নামে তাঁর এক সহযোগীকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দু’জনেই তরুণ কুস্তিগীর সাগর রানা হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত। গত ৪ মে দিল্লির ছত্রশাল স্টেডিয়াম চত্বরে গন্ডগোলে মৃত্যু হয় সাগরের। তাতে নিজের নাম জড়ালেও প্রথমে অভিযোগ অস্বীকার করেন সুশীল। কিন্তু ওই ঘটনার পর থেকেই তিনি ফেরার ছিলেন। পুলিশের দাবি, পাঞ্জাবের ভাটিন্ডায় আত্মগোপন করেছিলেন সুশীল। এদিন পাঞ্জাব পুলিশ তাঁদের আটক করে দিল্লি পুলিশের হাতে তুলে দেয়।
ঘটনার দিন ওই স্টেডিয়াম চত্বরে বেশ কিছু কুস্তিগীরের মধ্যে ঝগড়া এবং তা থেকে কথা কাটাকাটি ও মারামারি শুরু হয়। তার পরেই সাগর রানা নামে ওই কুস্তিগীরের দেহ উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় ২০০৮ সালে বেজিং অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ এবং ২০১২ সালে লন্ডল অলিম্পিকে রুপো জয়ী সুশীলের দিকে অভিযোগের আঙুল ওঠে। শুধু সুশীল নন, তাঁর আরও আট সঙ্গী মিলে মারধর করেন বলে অভিযোগ। এবং একটি ভিডিয়ো ফুটেজে সুশীলকে দেখা গিয়েছে বলেও পুলিশ সূত্রে খবর। অভিযুক্তদের মধ্যে প্রিন্স দালাল নামে একজন আগেই ধরা পড়েছিলেন। এই ঘটনায় নাম জড়ানোয় দিল্লি হাইকোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করেছিলেন সুশীল। যদিও সে আবেদন খারিজ হয়ে যায়। তারপর আত্মগোপন করেও শেষমেশ গ্রেপ্তার হলেন এই তারকা কুস্তিগীর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top