মাত্র ৪২-এ চলে গেলেন বক্সিং জগতের সুপারস্টার ডিঙ্কো

Ngangom-Dingko-Singh.jpg

তৎকালীন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের হাত থেকে সম্মান গ্রহণ করছেন ন্যাংগম ডিঙ্কো সিং

Onlooker desk: এশিয়ান গেমসে স্বর্ণপদক জয়ী বক্সার ন্যাংগম ডিঙ্কো সিং দীর্ঘ অসুস্থতার পর প্রয়াত হলেন আজ, বৃহস্পতিবার সকালে। মণিপুরের ইম্ফলে সেকতা গ্রামে নিজের বাড়িতেই মারা যান ডিঙ্কো। বয়স হয়েছিল মাত্র ৪২। দীর্ঘ দিন ধরে লিভার ক্যান্সারে ভুগছিলেন তিনি। গত বছর করোনাতেও আক্রান্ত হন। রেখে গেলেন স্ত্রী ও দুই সন্তানকে।
তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেণ রিজিজু, মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী নংথোমবাম বীরেন সিং-সহ অনেকে।
১৯৯৮-এ থাইল্যান্ডে ব্যাঙ্কক এশিয়ান গেমসে সোনা জয়ের পরে জাতীয় হিরো এবং মণিপুরের কার্যত ঘরের ছেলে হয়ে ওঠেন ডিঙ্কো। ১৬ বছর পর তাঁর দৌলতে এশিয়ান গেমসে বক্সিংয়ে পদক আসে দেশে। তার আগের বছর, ১৯৯৭-এ ব্যাঙ্ককে কিং’স কাপ জিতেছিলেন ডিঙ্কো।
তাঁর থেকেই অনুপ্রেরিত হয়ে বক্সিং জগতে পা রেখেছিলেন আর এক বিশ্বজয়ী খেলোয়াড় — ছ’বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন এবং অলিম্পিকে পদকজয়ী মেরি কম। সেই সময়ে ডিঙ্কোর জনপ্রিয়তা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছিল যে তাঁর সাফল্যকে স্বীকৃতি দিয়ে তৎকালীন মণিপুর সরকার ইম্ফলের চিংমেইরং খংন্যাং-অ্যানিকারক থেকে ল্যামলং ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার নাম রাখে ডিঙ্কো রোড। ১৯৯৮-তেই অর্জুন পুরস্কার দেওয়া হয় তাঁকে। ২০১৩-য় সম্মানিত হন পদ্মশ্রীতে।
তার তিন বছর বাদে, ২০১৬-য় লিভার ক্যান্সার ধরা পড়ে ডিঙ্কোর। ২০১৭-র জানুয়ারিতে দিল্লির ইনস্টিটিউট অফ লিবার অ্যান্ড বাইলিয়ারি সায়েন্সে ১৪ ঘণ্টার একটি অস্ত্রোপচার হয়েছিল বিশ্বখ্যাত বক্সারের। ইম্ফলের স্পোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ায় কোচ হিসাবে এবং নৌসেনাতেও কাজ করেছেন ডিঙ্কো।
ডিঙ্কোকে খেলাধূলার ‘সুপারস্টার’ হিসাবে চিহ্নিত করে বক্সিংকে জনপ্রিয় করার পিছনে ডিঙ্কোর ভূমিকার কথা লেখেন মোদী। রিজিজু-ও তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করে পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।
তাঁর মৃত্যুতে মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী নংথোমবাম বীরেন সিং টুইটে লেখেন — আজ সকালে শ্রী এন ডিঙ্কো সিংয়ের প্রয়াণে আমি স্তম্ভিত ও গভীর ভাবে শোকাহত। পদ্মশ্রীতে সম্মানিত ডিঙ্কো সিং মণিপুরের সর্বকালের সেরা বক্সারদের একজন। ওঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা। তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করি।
বক্সিংয়ে দেশের প্রথম অলিম্পিক পদকজয়ী বিজেন্দ্র সিং টুইটে লেখেন — এই ক্ষতিতে আমার আন্তরিক সমবেদনা জানাই। আশা করি, তাঁর জীবনের যাত্রা ও স্ট্রাগল সবসময়ের জন্য আগামী প্রজন্মের অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকুক। ই শোকের সময়ে তাঁর পরিবারের জন্য শক্তি কামনা করছি।
হকি ইন্ডিয়ার প্রেসি়ডেন্ট, মণিপুরের জ্ঞানেন্দ্র নিংগোমবাম-ও এই কালজয়ী বক্সারের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top