ওয়ার্ল্ড কাপের সূত্রে বিখ্যাত ‘ওয়েভিং ফ্ল্যাগে’র সুরে ভিডিয়ো রেড ভলান্টিয়ারদের

WhatsApp-Image-2021-05-16-at-1.24.59-PM.jpeg

Onlooker desk: ‘এ লড়াই লড়ব, একসাথে জিতব। মানুষের পাশে আছে রেড ভলান্টিয়ার’
লাল ব্যাকগ্রাউন্ডে নিখুঁত মাল্টিমিডিয়ার কাজে ফুটে উঠছে তাঁদেরই নানা কাজের চিত্র। সঙ্গে ২০১০ ফুটবল ওয়ার্ল্ড কাপের হাত ধরে খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছনো সেই ‘ওয়েভিং ফ্ল্যাগ’-এর সুর।
ভোটের আগে টুম্পা বা লুঙ্গি ডান্সের প্যারোডিতে প্রচার করে শিরোনামে এসেছিল বামেরা। ভিন্ন ধারার প্রচার নজর কেড়েছিল। নির্বাচনে একটি আসনও পায়নি তারা। অথচ করোনার জেরে গত বছর লকডাউনের গোড়া থেকে মানুষের পাশে থেকেছে বামেরা। ‘পক্ককেশদের দল’ বদনাম ঘোচাতে একঝাঁক তরুণ, স্বচ্ছ ভাবমূর্তির প্রার্থী দাঁড় করানো হয়েছিল। কিন্তু একটি কেন্দ্রেও ছাপ ফেলার মতো ফল করতে পারেনি তারা।


তারপরেও একদিনও বসে থাকেনি বামপন্থী মনোভাবাপন্ন তরুণ এই প্রজন্ম। বরং করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পরে ‘রেড ভলান্টিয়ার্স’ নাম দিয়ে নিজেদের দল তৈরি করে দৌড়ে বেড়াচ্ছে রাজ্যের সর্ব প্রান্তে। www.redvolunteerswb.com ওয়েবসাইটে প্রতি জেলার ভলান্টিয়ারদের নাম ও নম্বরের তালিকা দেওয়া হয়েছে। অক্সিজেন, ওষুধপত্র, খাবার থেকে অ্যাম্বুল্যান্সের ব্যবস্থা — ঝুঁকি উপেক্ষা করে পাশে তারা। ভালো সাড়া মিলেছে মানুষের কাছে।
নিজেদের বার্তা আরও ভালো ভাবে পৌঁছে দিতে এ বার সোমালি-কানাডিয়ান শিল্পী কে’নানের ত্রুবাদ্যুর অ্যালবামের ওয়েভিং ফ্ল্যাগের সুরে গান বেঁধেছে তারা। সেখানে করোনার এই সঙ্কটকালে কী ভাবে তারা ‘বন্ধুর’ পথে মানুষের পাশে থেকে এই লড়াইয়ে জেতার অঙ্গীকার করেছে, সে কথা জানিয়েছে। আগের প্যারোডিগুলোর মতো এটিরও লিরিক অত্যন্ত বুদ্ধিদীপ্ত। সুচারু ভাবে সেখানে সরকার বিরোধিতাকেও জায়গা করে দেওয়া হয়েছে। ভোটে না-জেতার কথাও বাদ পড়েনি।
তবে লক্ষ্যণীয় হলো এ ক্ষেত্রে যা গানটির সুর ব্যবহার করা হয়েছে, তার ইতিহাসের সঙ্গে সুন্দর মিলেছে ভলান্টিয়ারদের এই প্যারোডি। ‘ওয়েভিং ফ্ল্যাগ’ আদতে সোমালিয়া ও সেখানকার মানুষের স্বাধীনতার আকাঙ্ক্ষা নিয়ে লেখা গান। ২০১০-এ হাইতিতে ভূমিকম্পের পরে গানটির রিমেক কানাডায় ত্রাণ সংগ্রহে ব্যবহার করা হয়। সেটিও ছিল ব্যাপক হিট।
তবে সেই বছরেই দক্ষিণ আফ্রিকায় ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপে কোকা-কোলার প্রোমোশনাল সঙ্গীত হিসাবে গানটির ব্যবহার একে প্রকৃত অর্থে আন্তর্জাতিক খ্যাতি দেয়। পরে নানা ভাষায় অনুদিত হয় এই গান। এ বার করোনার তকমাও লাগল ‘ওয়েভিং ফ্ল্যাগে’।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top