প্রেমিকার সঙ্গে দেখা না হওয়ায় মেট্রো চলছে কি না প্রশ্ন যুবকের, উত্তর এলো, ‘যা জি লে আপনি জিন্দেগি’

IMG-20210611-WA0018.jpg

Onlooker desk: সোমবারই আনলক শুরু হয়েছে দিল্লিতে। করোনা সংক্রমণ অনেকখানি কমার পরে শর্তসাপেক্ষে তালা খুলছে রাজধানী। এরই মধ্যে এক যাত্রীর প্রশ্নের জবাবে দিল্লি মেট্রোর টুইট ঘিরে হাসির রোল নেট দুনিয়ায়।
প্রায় এক মাসের বিরতির পর দিল্লি মেট্রোর যাত্রা শুরু হয়েছে। বাসিন্দারা মেট্রোর নতুন সূচি ও নিয়মে অভ্যস্ত হয়ে উঠতে পারেননি এখনও। এরই মাঝে এক ব্যক্তির প্রশ্ন ও তার জবাব ঘিরে শিরোনামে এসেছে মেট্রো।

টুইটারে দিল্লি মেট্রোর উত্তর

গোটা দেশে করোনার দাপাদাপিতে অন্যতম প্রভাবিত এলাকাগুলোর একটা দিল্লি। কঠোর লকডাউন এবং বিধিনিষেধ জারি করে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করে সরকার। তাতে সুফলও মিলেছে। কিন্তু এই দীর্ঘ লকডাউন, বাড়ির ভিতরে থাকার বাধ্যতার জেরে প্রিয় মানুষদের সঙ্গে দেখাসাক্ষাৎ বন্ধ। সবচেয়ে বেশি সমস্যা পড়েছেন প্রেমিক-প্রেমিকারা। তেমনই একজন মেট্রো কর্তৃপক্ষের কাছে জানতে চান, সপ্তাহান্তে কি ট্রেন চলছে? তা হলে তিনি অবশেষে গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গে দেখা করতে যেতে পারবেন। নয়তো এ বার ব্রেক আপই হয়ে যাবে! টুইটে দিল্লি মেট্রো রেল কর্পোরেশন (ডিএমআরসি)-কে ট্যাগ করেন ওই তরুণ।
টুইটটি রেল কর্তৃপক্ষের নজর কাড়তে সময় নেয়নি। ওই তরুণকে তাঁরা উত্তর তো দেনই। পাশাপাশি দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে-তে অমরীশ পুরীর সেই বিখ্যাত সংলাপ দেওয়া জিফ-ও শেয়ার করেন। যাতে মুষড়ে পড়া প্রেমিক কিছুটা চাঙ্গা হন।
কী লিখেছে মেট্রো? জিফ-এ দেখা যাচ্ছে, ১৯৯৫-এর ডিডিএলজে-র শেষ একেবারে শেষ পর্যায়ের সেই প্ল্যাটফর্মের দৃশ্য। যেখানে অমরীশ পুরী মুচকি হেসে কন্যা কাজল আর তার প্রেমিকের দিকে থাম্বস আপ দেখাচ্ছেন। উপরে লেখা — মেট্রো চালু হ্যায় মেরে দোস্ত। যা জি লে আপনি জিন্দেগি।
সরকারি নিয়ম ও নিষেধাজ্ঞা মেনে বর্তমানে মোট আসনের ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারছে দিল্লি মেট্রো। ভিড় এড়াতে দাঁড়িয়ে যাতায়াত নিষিদ্ধ।
তবে দিল্লি মেট্রোই প্রথম কোনও প্রেমিককে উত্তর দিল, তা নয়। এপ্রিলে মুম্বই পুলিশও এমন এক জবাবে বহু মানুষের হৃদয় জয় করেছিল। সে ক্ষেত্রেও এক তরুণ একই রকম প্রশ্ন করেছিলেন পুলিশকে। বিধিনিষেধের মধ্যে একটিবার দেখা করতে দেবেন প্রেমিকার সঙ্গে?
প্রসঙ্গত, শুক্রবার গত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে ২৩৮টি নতুন করোনা সংক্রমণের হদিস মিলেছে। রোগমুক্ত হয়েছেন ৫০৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২৪ জনের। দিল্লিতে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১৪ লক্ষ ৩০ হাজার ৬৭১, মোট রোগমুক্ত ১৪ লক্ষ ১ হাজার ৯৭৭ এবং মোট মৃত্যু ২৪ হাজার ৭৭২। বর্তমানে সেখানে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৩ হাজার ৯২২।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top