কলকাতায় ১০০ পেরোচ্ছে পেট্রল, দর দেখাতে নতুন ডিসপ্লে প্যানেলের খোঁজে পাম্পগুলি

fuel-price-rise.jpg

কলকাতা: শহরে পেট্রলের দর ১০০ ছুঁয়ে ফেলল। আর এই অবস্থায় নতুন সমস্যায় পেট্রল পাম্পগুলি।
তাদের এখন নতুন ইলেকট্রনিক ডিসপ্লে প্যানেল দরকার। কারণ টাকা ও পয়সা মিলিয়ে পাঁচ ডিজিটের ডিসপ্লে প্যানেল নেই। রয়েছে চার ডিজিটের প্যানেল। যেখানে সর্বোচ্চ ৯৯.৯৯ টাকা দেখানো সম্ভব। এখন তো তাতে কাজ হবে না। সোমবার তাই নতুন ডিসপ্লে বোর্ডের খোঁজে হন্যে পাম্পগুলি।
শেষ এই পরিবর্তন প্রয়োজন হয়েছিল ১৯৯০-এর অক্টোবরে। সে বার জ্বালানি তেলের দাম এক ডিজিট থেকে দু’ডিজিটে পা রেখেছিল। ২ টাকা ৩৯ পয়সা বেড়ে এক লিটার পেট্রলের দাম হয়েছিল ১২ টাকা ২৩ পয়সা।
হাই অকটেন পেট্রলের দাম কলকাতায় আগেই ১০০-র গণ্ডি পেরিয়েছে। সাধারণ পেট্রলের দামও সোমবার রাতে সিঁথির একটি পাম্পে ১০০ টাকা ছাড়ি গিয়েছে। অন্যান্য পাম্পে তা সময়ের অপেক্ষা।
তা হলে কী করণীয়? এই পরিস্থিতিতে অনেক পাম্পই হয় ডিসপ্লে প্যানেল বন্ধ রেখেছে। না হলে সেই পুরোনো হাতে লেখা বোর্ডের পথ ধরেছে।
জ্বালানি তেলের দাম যে এত দ্রুত তিন সংখ্যা পেরোবে, সেটা সম্ভবত কেউ আঁচ করেননি। দক্ষিণ কলকাতার একটি পেট্রল পাম্পের এক ম্যানেজার সোমবার সংবাদমাধ্যমে এ কথা জানান। তিনি বলেন, ‘দেশের অন্য রাজ্য ও শহরের পরিস্থিতিতে নজর রাখছিলাম। সেই মতো নতুন ডিসপ্নে প্যানেলের অর্ডার দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এখনও সেগুলি আসেনি। তাই আপাতত বিভ্রান্তি এড়াতে বোর্ডগুলি বন্ধ রাখছি।’
এ দিন কলকাতার উত্তর থেকে দক্ষিণে একাধিক পাম্পে ডিসপ্লে প্যানেল বন্ধ করে রাখা হয়। সাধারণ পেট্রল ও ডিজেলের প্রকৃত দর দেখানো হলেও হাই অকটেন জ্বালানি ছিল ০০.০০ টাকা। উত্তর কলকাতার একটি পেট্রল পাম্পের তরফেও জানান হয়, নতুন বোর্ড আসার অপেক্ষায় রয়েছে তারা। তার আগে বিভ্রান্তি এড়াতে প্যানেল বন্ধ রাখাই পথ।
গত ২ জুলাই পশ্চিমবঙ্গে প্রথম ১০০ পেরোয় পেট্রলের দাম। সে দিন উত্তরবঙ্গের একাধিক জায়গায় দর তিন সংখ্যা ছোঁয়। রবিবার নদিয়ায় এই প্রভাব পড়ে। এর আগে পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্র, বিহার, রাজস্থান, কেরালা, তামিলনাড়ু, অন্ধ্র প্রদেশ, মধ্য প্রদেশ, কর্নাটক, তেলঙ্গানা, ওডিশা, মণিপুর, জম্মু-কাশ্মীরের মতো বহু রাজ্যে ১০০ পেরিয়েছে জ্বালানি তেলের দাম।
ডিসপ্লে প্যানেলের এই সমস্যা সম্পর্কে তেল সংস্থাগুলিও অবহিত। তারা বিষয়টি দেখছে।
পেট্রল-ডিজেলের এই অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সোমবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কড়া চিঠি দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিষয়টি নিয়ে আন্দোলনে নামছে তৃণমূল কংগ্রেস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top