কলকাতায় টর্নেডো সতর্কতা জারি নবান্নের, জলোচ্ছ্বাস দুই জেলায়

E8EFEC8B-5894-4AA0-ADF4-6F561674E212.jpeg

প্রতীকী চিত্র

Onlooker desk: মঙ্গলবার হালিশহর ও ব্যান্ডেলে টর্নেডোয় যথেষ্ট ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ বার কলকাতায় টর্নেডো সতর্কতা জারি করল নবান্ন। এখন বাড়ি থেকে না-বেরোনোর পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।
এ দিকে, অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াস ইতিমধ্যেই ওডিশার বালেশ্বরের দক্ষিণে আছড়ে পড়েছে। সকাল সওয়া ৯টায় ল্যান্ডফল হয় তার। তবে তার আগে থেকেই প্রভাব শুরু হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকায়। প্রবল জলোচ্ছ্বাস শুরু হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায়। জল ঢুকে ভাসছে দিঘা, মন্দারমণি, তাজপুর এদিকে গোসাবা, কুলতলি ইত্যাদি এলাকার বিভিন্ন গ্রাম।
একে আজ, বুধবার বুদ্ধ পূর্ণিমা, তার উপরে পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ। পূর্ণিমার প্রভাবে আজ সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে ছিল জোয়ার। ঠিক ওই সময়েই স্থলভাগে আছড়ে পড়ে ইয়াস। সকাল ১১টা ৩৭ মিনিটে জোয়ারের সর্বোচ্চ সীমা।
এরই মধ্যে দুপুর ৩টো ১৫ মিনিটে পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ শুরু হওয়ার কথা। চলবে সন্ধ্যা ৬টা ২৩ মিনিট পর্যন্ত। ২০২১ সালে এটিই প্রথম ও শেষ ‘ব্লাড মুন’।
গতি বাড়িয়ে পূর্ব নির্ধারিত সময়ের আগেই স্থলভাগে আছড়ে পড়েছে ইয়াস। ফলে একদিকে ভরা কোটাল ও অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড়ের স্থলভাগে আছড়ে পড়া — দুইয়ের সমাপতনে বেড়েছে দুর্যোগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top