মন্ত্রিসভার শপথের মুখে নারদ কাণ্ডে সবুজ সঙ্কেত ধনখড়ের

FEAD9511-B043-4B50-BD48-6E5DA877FB03.jpeg

কলকাতা: দুতরফে অশান্তি, টানাপড়েনই বেশি। সেই গোলমালের তালিকা আরও লম্বা করে তৃতীয়বারের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভা শপথ নেওয়ার ঠিক আগে অতীতের চার মন্ত্রীর বিরুদ্ধেনারদ কাণ্ডে তদন্ত চালিয়ে যেতে সিবিআইকে অনুমতি দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। নিজে টুইটকরে জানিয়েছেন সে কথা। ওই চার জনের মধ্যে সুব্রত মুখোপাধ্যায় ফিরহাদ হাকিম আজ, সোমবারওরাজভবনে ধনখড়ের সাহায্যে মন্ত্রী হিসাবে শপথ নেবেন। রবিবার ৪৩ জন মন্ত্রীর নামের তালিকাপ্রকাশ করা হয়েছে।

বারের বিধানসভা নির্বাচনে জিততে চেষ্টার কসুর করেনি বিজেপি। প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মতোভিভিআইপি কার্যত ডেলি প্যাসেঞ্জারি করেছেন বাংলার মানুষের মনে জায়গা করে নিতে। কিন্তু তাতেওবাংলায় বিশেষ সুবিধা করতে পারেনি গেরুয়া দল। বিপুল ভাবে জয়ী হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। গতবুধবার তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছেন মমতা। আর আজ, সোমবার মন্ত্রিসভারশপথ।

তার আগেই চার মন্ত্রীর বিরুদ্ধে তদন্তে সবুজ সঙ্কেতে রাজনৈতিক সমীকারণ দেখছেন অনেকে। তা ছাড়া, নারদে নাম জড়িয়েছিল শুভেন্দু অধিকারীর। শুভেন্দু তখন তৃণমূলের টিকিটে সাংসদ ছিলেন। এখনঅবশ্য বিজেপি হয়েছেন, নন্দীগ্রামে মমতাকে পরাজিত করে বিধায়কও। তাঁর বিরুদ্ধে তদন্তে সায় দেওয়ারকথা লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার। কিন্তু সেই সায় এখনও আসেনি। প্রশ্ন উঠছে, বিজেপি শিবিরেথাকার কারণেই কি শুভেন্দুকে এখনও রেহাই দেওয়া হচ্ছে?

নারদের স্টিং ভিডিয়ো সামনে আসে ২০১৬য়। কিন্তু সেটি করা হয়েছিল ২০১৪য়। যেখানে দেখা যায়, রাজ্যে ব্যবসা করার জন্য এক ব্যক্তি তৃণমূলের তৎকালীন সাত সাংসদ, চারজন মন্ত্রী, এক বিধায়কএবং রাজ্যের এক পুলিশ অফিসারকে মোটা টাকা ঘুষ দিচ্ছেন। আসলে ব্যবসায়ী সেজে ভিডিয়োটিকরেছিলেন এক সাংবাদিক। সেই তালিকাতেই ছিলেন সুব্রত ফিরহাদ। তাঁরা বাদে মদন মিত্র শোভনচট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্দে মামলা চালাতে বলেছেন ধনখড়। মদন বার মন্ত্রিত্বের তালিকায় নেই আরশোভন দল ছেডে় বিজেপিতে গিয়ে বিজেপিও ছেড়ে দিয়েছেন মার্চে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top