‘অনিবার্য’ কারণে বসল না বেঞ্চ, আজ শুনানিই হলো না নারদ মামলার

4-LEADER.jpg

কলকাতা: আশা ছিল, আজ, বৃহস্পতিবার শুনানিতে হয়তো জামিন হবে। কিন্তু জামিন তো দূর, আজ শুনানিই হচ্ছে না কলকাতা হাইকোর্টে। কারণ প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ আজ বসবে না। ফলে আজকের দিনটাও জেল হেফাজতেই কাটাতে হবে রাজ্যের দুই মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, বিধায়ক মদন মিত্র এবং দলত্যাগী প্রাক্তন মেয়র-মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়কে।
বুধবার মামলাটির শুনানি শুরু হয়েছে হাইকোর্টে প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে, আদালতে যা প্রথম ডিভিশন বেঞ্চ হিসাবে পরিচিত। সে দিন মামলাটি অন্য রাজ্যে সরানো প্রসঙ্গে সওয়াল জবাব হয়। আজ, বৃহস্পতিবার দুপুর দুটোয় ফের তা আদালতে ওঠার কথা ছিল। কিন্ত এ দিন বেলার দিকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে হাইকোর্টের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে — ‘অনিবার্য কারণবশত’ প্রথম ডিভিশন বেঞ্চ বৃহস্পতিবার বসছে না।
কাল, শুক্রবার শুনানি হতে পারে বলে একটি সূত্রের খবর। তবে তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। বিষয়টি স্পষ্ট হবে কাল, শুক্রবার সকালে।
বর্তমানে সুব্রত, মদন ও শোভন এসএসকেএমে চিকিৎসাধীন। ফিরহাদ আছেন প্রেসিডেন্সি জেলের হাসপাতালে। গত সোমবার দিনভর নাটকের পর রাত দেড়টা নাগাদ তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।
ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দল ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটি ওঠে বুধবার। মামলা অন্যত্র সরানোর আর্জিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক ও তৃণমূলের আইনজীবী সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে যুক্ত করা হয়। অভিযোগ, গ্রেপ্তারির পর তাঁরা নানা ভাবে অসহযোগিতা করেছেন এবং রাজ্যজুড়ে গোলমালের ক্ষেত্র প্রস্তুত করেছেন। বুধবার প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে চলে শুনানি। আজ, বৃহস্পতিবার মামলাটি ওঠের কথা থাকলেও তা হলো না। আজ রাতটাও জেল হেফাজতেই থাকছে হচ্ছে চার হেভিওয়েটকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top