রাজ্য হারালো আরএক কোভিড-যোদ্ধাকে, প্রয়াত টিকা বণ্টনের দায়িত্বে থাকা স্বাস্থ্যকর্তা

gautam-chowdhury.jpg

প্রয়াত গৌতম চৌধুরী

কলকাতা: করোনা আক্রান্ত হয়ে বেশ কিছু দিন ধরেই হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। বুধবার গভীর রাতে থেমে গেল সব লড়াই। প্রয়াত হলেন রাজ্যে কোভিড-যোদ্ধাদের অন্যতম, স্বাস্থ্য-পরিবহণ দপ্তরের শীর্ষ আধিকারিক গৌতম চৌধুরী। এ রাজ্যে ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করা এবং তা রাজ্য জুড়ে বণ্টনের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। কোভিড রোগীদের জন্য নিখরচায় অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা চালু করেছে রাজ্য। তা পরিচালনার দায়িত্বও ছিল গৌতমের কাঁধে। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই তাঁর মৃত্যুতে দপ্তরের কাজে কিছুটা প্রভাব পড়বে বলে মনে করছেন সহকর্মীরা।
সহকর্মীদের মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিলেন এই স্বাস্থ্য আধিকারিক। সহকর্মীদের বক্তব্য, করোনার প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন তিনি। একাধিক দায়িত্ব দক্ষতার সঙ্গে সামলাতেন। রাজ্যের মানুষের টিকার ব্যবস্থা করতে সিরাম ইনস্টিটিউট বা ভারত বায়োটেরকের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা থেকে বিমানে টিকা আনা এবং তা বাগবাজার সেন্ট্রাল হেলথ স্টোরে নিয়ে যাওয়া থেকে রাজ্য জুড়ে বণ্টণ, সবটাই সামলাতেন দক্ষতার সঙ্গে।
এ রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে এর আগে অনেক চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। গত এপ্রিল মাসে করোনা আক্রান্ত হন গৌতম চৌধুরী। আক্রান্ত হয়েছিলেন তাঁর স্ত্রীও। দু’জনই কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। শেষমেশ লড়াইটা থেমে গেল রাজ্যের অন্যতম এই কোভিড যোদ্ধার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top