প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি আর কুমারমঙ্গলমের স্ত্রীকে বাড়িতে ঢুকে হত্যা

Kitty-kumarmangalam.jpg

Onlooker desk: প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি আর কুমারমঙ্গলমের (p r kumarmangalam) স্ত্রীকে হত্যা করা হলো। দিল্লিতে তাঁদের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে বছর ৬৭-র কিটি কুমারমঙ্গলমের দেহ। রাজধানীর বসন্ত বিহারে থাকেন কুমারমঙ্গলমরা (p r kumarmangalam)। সেখানে বালিশ চাপা দিয়ে কিটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে মবে করা হচ্ছে।
মঙ্গলবার রাত ৯ টা নাগাদ বাড়িতে পরিচারিকার সঙ্গে ছিলেন কিটি। সেই সময়ে তাঁদের বাড়ির ধোপা আরও দুজনকে নিয়ে ডাকাতির উদ্দেশ্যে চড়াও হয় বলে অভিযোগ। পরিচারিকাকে একটা ঘরে আটকে রাখা হয়। তারপরে তারা কিটির উপরে চড়াও হয়ে তাঁকে হত্যা করে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
সেদিনই রাত ১১ টা নাগাদ খবর দেওয়া হয় পুলিশে। মূল অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।
কিটি কুমারমঙ্গলম সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হিসাবে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন।
তাঁর স্বামী ১৯৮৪ সালে প্রথম লোকসভায় নির্বাচিত হন। সেবার জিতেছিলেন সালেম থেকে। ১৯৯৬ পর্যন্ত ওই আসনেই ছিলেন। ১৯৯৮ থেকে দু’বছর তিরুচিরাপল্লি আসনের সাংসদ ছিলেন
১৯৯১-৯২, ১৯৯২-৯৩ এবং ১৯৯৮ এ তিন দফায় মন্ত্রী ছিলেন তিনি। নরসিমহা রাও, অটল বিহারি বাজপেয়ীদের মন্ত্রিসভায় ছিলেন তিনি। আইন, বিদ্যুতের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রক সামলেছেন পি আর কুমারমঙ্গলম (p r kumarmangalam)। ২০০০-র ২৩ অগস্ট মৃত্যু হয় তাঁর।
কিটি কুমারমঙ্গলমের ছেলে রঙ্গরাজন মোহন কংগ্রেসের নেতা। তিনি বেঙ্গালুরুতে ছিলেন। মায়ের অস্বাভাবিক মৃত্যুর খবরে দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেন।
দক্ষিণ পশ্চিম দিল্লির ডেপুটি কমিশনার ইঙ্গিত প্রতাপ সিং বলেন, ‘ঘটনাটি ঘটে রাত ৯টা নাগাদ। ধোপা বাড়িতে এলে তাকে দরজা খুলে দেন পরিচারিকা। তখনই তাঁর উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে অভিযুক্ত। পরিচারিকাকে টেনে অন্য ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে তাঁকে বেঁধে রাখে। ইতিমধ্যে আরও দুজন ঢুকে আসে বাড়িতে। তারা কিটি কুমারমঙ্গলমের উপরে চড়াও হয়। বালিশ দিয়ে শ্বাসরোধ করে তাঁকে হত্যা করে।’
তাঁর সংযোজন, ‘রাত ১১টা নাগাদ আমাদের কাছে ফোন আসে। কিছুক্ষণের মধ্যেই তদন্তকারী দল গঠন করা হয়। ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখা যায়, কয়েকটি সুটকেস খোলা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। পুলিশ মূল অভিযুক্ত, বছর ২৪-এর রাজুকে গ্রেপ্তার করেছে। বসন্ত বিহারের একটি ক্যাম্পে বাড়ি থেকেই ধরা হয় তাকে। তাকে জেরা করে বাকি দুজনের নাম জানা গিয়েছে।’ পুলিশ তাদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top