মোদীকে সরিয়ে নিজের ছবি সাঁটলেন বাঘেল, বিতর্ক ওড়াল ছত্তিসগড়

WhatsApp-Image-2021-05-22-at-11.59.49-AM.jpeg

মুখ্যমন্ত্রীর ছবি দেওয়া এই সার্টিফিকেট ঘিরেই শুরু হয়েছে বিতর্ক

Onlooker desk: ফের মাথাচাড়া দিয়েছে ‘ছবি-বিতর্ক’।
বিধানসভা নির্বাচন চলাকালীন টিকার শংসাপত্রে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি আপত্তি জানিয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। পরে নির্বাচনমুখী রাজ্যগুলিতে শংসাপত্র থেকে তা বাদ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।
এ বার ছবি-বিতর্কে ছত্তিসগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল। টিকার শংসাপত্র থেকে মোদীর ছবি সরিয়ে নিজের ছবি সেঁটেছেন তিনি। তবে এ নিয়ে বিতর্কের কোনও কারণ নেই বলে ছত্তিসগড় সরকারের দাবি। স্বাস্থ্যমন্ত্রী টিএস সিং দেও সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘এ নিয়ে বিতর্কের কিছু তো দেখছি না। যখন কেন্দ্রীয় সরকার টিকার টাকা দিচ্ছিল, তখন প্রধানমন্ত্রীর ছবি ব্যবহার করা হচ্ছিল। সে জায়গায় রাজ্য সরকার যদি কিছু করে, তা হলে আমরা মুখ্যমন্ত্রীর ছবিই দেব। কেন্দ্র যখন পুরোটাই রাজ্যের ঘাড়ে চাপিয়ে দিয়েছে এবং টিকার খরচ রাজ্যকে বহন করতে হচ্ছে, তখন আমরা নিজেদের শংসাপত্র দেব না কেন? সেই শংসাপত্রে মোদীর মুখই বা ছাপা হবে কীসের জন্য?’
শনিবার গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২ লক্ষ ৫৭ হাজার ২৯৯টি নতুন সংক্রমণের হদিস মিলেছে। সেই নিরিখে সংখ্যা সামান্য কমলেও দৈনিক মৃত্যু চার হাজারের উপরেই। এ দিন মারা গিয়েছেন ৪,১৯৪ জন। এর মধ্যে এ পর্যন্ত ১৯ কোটি ৩২ লক্ষ ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। এ বছরের মধ্যে ১৮-ঊর্ধ্ব সকলের টিকাকরণ সম্পন্ন করা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।
পরিস্থিতি মোকাবিলায় কর্নাটক ও কেরালা লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়েছে। কর্নাটকে লকডাউন আগামী ৭ জুন পর্যন্ত, কেরালায় ৩০ মে পর্যন্ত।
স্বস্তি দিয়ে দিল্লির পজিটিভিটি রেট অবশ্য ৫ শতাংশেরও নীচে নেমেছে। গত ১৯ এপ্রিল থেকে লকডাউন চলছে সেখানে।
এ দিকে, চিন্তা বাড়াচ্ছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকরমাইকোসিস। সে জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে দাবি কেন্দ্রীয় সরকারের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top