মোদীর আয়ুষ্মান ভারতে চিকিৎসা না পেয়ে করোনা রোগীর মৃত্যুর নালিশ

AYUSHMAN-BHARAT.jpg

Onlooker desk: কেন্দ্রীয় সরকারের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে কোভিড চিকিৎসা হবে বলে জানিয়েছিলেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। অথচ সেখানকার চিরায়ু হাসপাতালে এই প্রকল্প চিকিৎসা প্রদান না করার অভিযোগ উঠল। চিকিৎসা না পেয়ে মৃত্যু হয় করোনা আক্রান্ত রুক্মিনী বলওয়ানি নামে এক মহিলার। এই ঘটনার পর ক্ষোভ প্রকাশ করে মৃতার ছেলে। সেই ভিডিয়ো রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়। বিষয়টি সামনে আসতেই শোকজ করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে।
১৯ এপ্রিল চিরায়ু হাসপাতালে ভর্তি হন রুক্মিনী। কোভিড টেস্টের পর তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসে। রুক্মিনীর পরিবার আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের আওতাধীন। ফলে সরকারি ওই প্রকল্পে চিকিৎসার আশা করেছিলেন তাঁরা। কারণ হিসেবে পরিবারের লোকজন জানান, আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পে বেসরকারি হাসপাতালেও কোভিড চিকিৎসা হবে বলে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। রেমডিসিভির এবং অক্সিজেনও পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছিলেন। কিন্তু বাস্তবে সে সব কিছুই পরিষেবা পাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ। এমনকী সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পেতে আবেদন জানানো হলে তাঁদের সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দুর্ব্যবহার করেন বলেও অভিযোগ। সরকারি প্রকল্পের সুবিধা তাঁরা পাবেন না বলে হাসপাতালের তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়। এর মধ্যে রবিবার মৃত্যু হয় রুক্মিনীর। এর পরই ক্ষোভ প্রকাশ করেন তাঁর ছেলে। সেই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। শোকজ করা হয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। নির্দিষ্ট সময়ে যথাযথ উত্তর না পেলে হাসপাতালের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপের কথাও জানানো হয়েছে।
যদিও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, রুক্মিনী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ১৯ এপ্রিল। আর মধ্যপ্রদেশে কোভিডের চিকিৎসা আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের আওতায় আনার কথা মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন ৭ মে। সে কারণেই সরকারি প্রকল্পে পরিষেবা দেওয়া যায়নি ওই রোগীকে। যদিও মৃতার পরিবারের দাবি, ৭ মে নয়, ২৪ মার্চ আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পে কোভিড চিকিৎসার কথা ঘোষণা হয়েছিল। এবং সেই তালিকায় চিরায়ু হাসপাতালের নামও রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top