এক দিনে ৮৪ লক্ষেরও বেশি টিকা দেওয়া হলো দেশে, শুভেচ্ছা জানালেন মোদী

Polish_20210622_005033757.jpg

Onlooker desk: সোমবার দেশজুড়ে বিনামূল্যে ১৮-ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ শুরু হওয়ার কথা ছিল। সেই মতো টিকাকরণ শুরু হয় এ দিন। যার হাত ধরে সোমবার ৮৪ লক্ষেরও বেশি মানুষকে টিকা দেওয়া হলো সোমবার। নতুন এই টিকা নীতি ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সোমবার রাতে টুইটে ‘ওয়েল ডান ইন্ডিয়া’ লিখে প্রশংসা করেন তিনি। যাঁরা টিকা পেয়েছেন, তাঁদের অভিনন্দন জানান। পাশাপাশি কুর্নিশ করেন প্রথম সারির যোদ্ধাদের।
এ মাসের গোড়ায় নতুন টিকাকরণ পদ্ধতি ঘোষণা করেছিলেন মোদী। তিনি জানান, দেশের মোট টিকার ৭৫ শতাংশ কেন্দ্র কিনে নেবে। বাকি টিকা কিনবে বেসরকারি হাসপাতালগুলি। সরকারি সমস্ত প্রতিষ্ঠানে ১৮ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে টিকা দেওয়া হবে। আর বেসরকারি হাসপাতাল থেকে টিকা কিনতে পারবেন ইচ্ছুকরা। তবে সেই দামও বেঁধে দেয় কেন্দ্র।
এর আগে দেশে সবচেয়ে বেশি টিকাকরণ হয়েছিল গত ২ এপ্রিল। সে দিন ৪২ লক্ষ ৬৫ হাজার ১৫৭টি টিকার ডোজ দেওয়া হয়। কিন্তু আজকের পরিসংখ্যান তার চেয়ে অনেক বেশি। প্রধানমন্ত্রী আজ টুইটে লেখেন — প্রত্যেক ভারতবাসীকে বিনামূল্যে টিকা দেওয়া শুরু হচ্ছে আজ। দেশের এই পর্বের টিকাকরণে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হবেন দরিদ্র মানুষ ও মধ্যবিত্তরা। নবীন প্রজন্মও এর উপকার পাবে। আমরা সকলেই যেন টিকা নিই। এই শপথ করতে হবে। আমরা একসঙ্গে কোভিডকে হারাব।
প্রসঙ্গত, আজ আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে একটি চিঠি লেখেন মোদী। সেখানেও অতিমারীকে হারানোর ব্যাপারে আশা প্রকাশ করেন। চিঠিতে মোদী জানান — মানবিকতার মাধ্যমে আমরা করোনাকে পরাজিত করবই।
এ দিকে, নতুন টিকানীতির প্রথম দিন তৎপর ছিল বিভিন্ন রাজ্যও। এ পর্যন্ত তাদের দৈনিক যত টিকাকরণ হয়েছে, তার চেয়ে বেশি ভ্যাকসিনেশনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করেছে রাজ্যগুলি। রবিবার কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, রাজ্যগুলিকে এ পর্যন্ত ২৯.১০ কোটি ডোজ দেওয়া হয়েছে। বিনামূল্যে রাজ্যের সরাসরি সংগ্রহ ক্যাটেগরিতেই মিলেছে এই টিকা। এখনও রাজ্যগুলির কাছে ৩.০৬ কোটি ডোজ টিকা পড়ে রয়েছে। আগামী তিন দিনের মধ্যে ২৪ লক্ষ ৫৩ হাজার ৮০ ডোজ দেওয়া হবে রাজ্যগুলিকে।
কেন্দ্রীয় সরকার দায়িত্ব নেওয়ার আগে ৫০ শতাংশ টিকা সংগ্রহের দায়িত্ব ছিল রাজ্যগুলির। ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সিদের সেই টিকা দিচ্ছিল রাজ্য। কিন্তু এ জন্য টিকা কিনতে হচ্ছিল রাজ্যগুলিকে। ৪৫ ঊর্ধ্বদের বিনামূল্যে টিকা দিচ্ছিল কেন্দ্র। এ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের প্রশ্নের ভর্ৎসনার মুখে পড়তে হয় তাদের। খানিকটা চাপে পড়েই টিকানীতি বদলায় কেন্দ্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top