‘সংসদ গণতন্ত্রের মন্দির’, জাতির উদ্দেশে ভাষণে বললেন রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ

President-ram-nath-kovind.jpg

Onlooker desk: ৭৫তম স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে জাতির উদ্দেশে ভাষণে সংসদের প্রসঙ্গ টেনে আনলেন রাষ্ট্রপতি (President) রামনাথ কোবিন্দ (Ram Nath Kovind)।
তুমুল হই-হট্টগোলের মধ্যে সংসদের বাদল অধিবেশনে এ বার নির্ধারিত সময়ের আগেই ইতি পড়ে। সরাসরি সে প্রসঙ্গ উল্লেখ করেননি কোবিন্দ। তবে শনিবার তিনি বলেন, ‘সংসদ হল দেশের গণতন্ত্রের মন্দির। মানুষের উন্নয়নের স্বার্থে নানা বিষয়ে আলোচনার, তর্ক-বিতর্কের জায়গা।’
এ দিন রাষ্ট্রপতির (President) ভাষণ টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয়। সেখানে কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রসঙ্গ তোলেন কোবিন্দ। বিপুল সংখ্যক মানুষের মৃত্যু নিয়ে শোক প্রকাশ করেন। তিনি জানান, কোভিড এখনও যায়নি। তাই সকলে যেন বিধি মেনে চলেন।
পাশাপাশি রাষ্ট্রপতি (President) কৃষক আন্দোলন নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। কোবিন্দের (Ram Nath Kovind) বক্তব্য, কৃষি বিপণনের সংস্কার ‘অন্নদাতা’ কৃষকদের তাঁদের শস্যের জন্য বেশি দাম পেতে সাহায্য করবে।
লোকসভা ও রাজ্যসভা দু’টিই গত বুধবার মুলতুবি হয়ে যায়। নির্ধারিত দিনের দু’দিন আগেই অধিবেশন বন্ধ করে দেওয়া হয়। বচসা, কথা কাটাকাটি, হইচই তো বটেই। এ বারের অধিবেশনে রাজ্যসভায় ধাক্কাধাক্কি পর্যন্ত দেখা যায়। গত ১৯ জুলাই অধিবেশন শুরু হয়। তার পর থেকেই পেগ্যাসাস, কৃষক আন্দোলন-সহ নানা ইস্যুতে প্রবল অশান্তি চলতে থাকে।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বারবার এ নিয়ে বিরোধীদের বেঁধেন। অন্যদিকে বিরোধীদের অভিযোগ, সরকার তাদের গণতন্ত্রকে ‘হত্যা’ করছে। বহিরাগতদের মার্শাল হিসাবে নিয়ে এসে সাংসদদের মারধর করছে। যদিও সরকার এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। সরকারের পাল্টা দাবি, সংসদ অচল করে রাখার পূর্ব পরিকল্পনা ছিল বিরোধীদের।
রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ (Ram Nath Kovind) এ দিন বলেন, ‘ভারত যখন স্বাধীন হল, তখন অনেকেরই ধারণা ছিল, এখানে গণতন্ত্র থাকবে না। কিন্তু তারা জানত না যে প্রাচীন কালেই এই মাটির গভীরে গণতন্ত্রের শিকড় পোঁতা হয়েছে। আধুনিক কালেও পশ্চিমের বহু দেশের তুলনায় ভারত অনেকখানি এগিয়ে। প্রতিষ্ঠাতারা দেশের মানুষের বিবেচনার উপরে আস্থা রেখেছিলেন। এবং আমরা, ভারতের মানুষ দেশকে শক্তিশালী গণতন্ত্র হিসাবে গড়ে তুলেছি।’
এই সূত্রেই সংসদের প্রসঙ্গ তোলেন কোবিন্দ (Ram Nath Kovind)। তাঁর কথায়, ‘আমরা সংসদীয় গণতন্ত্রের পথ ধরেছি। সেই কারণে আমাদের সংসদ আমাদের গণতন্ত্রের মন্দির। সর্বোচ্চ এই মঞ্চে আমরা আলোচনা, তর্ক ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রক্রিয়া চালাতে পারি।’ সংসদ যে শীঘ্রই নতুন ভবনে যাবে, সেটাও আপামর ভারতবাসীর জন্য বিশাল গর্বের বিষয় বলে রাষ্ট্রপতির (President) দাবি।

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top