আনলক নয়! মন্ত্রীর ঘোষণার পর সরকারি বিবৃতিতে ‘ডিগবাজি’ মহারাষ্ট্র সরকারের

mumbai.jpg

Onlooker desk: মন্ত্রীর ঘোষণার পাল্টা বিজ্ঞপ্তি জারি করে মহারাষ্ট্র সরকার জানাল, লকডাউন তোলার ব্যাপারে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। পুরোটাই আলোচনা স্তরে। দীর্ঘ লকডাউন শেষ হতে চলেছে শুনে রাজ্যের মানুষ আশায় বুক বেঁধেছিলেন। কিন্তু এ বার সরকারি ‘ইউ টার্নে’ ফের আগের অবস্থায় ফিরলেন তাঁরা।
মহারাষ্ট্রের পুনর্বাসন মন্ত্রী বিজয় ওয়াদ্দেত্তিওয়ার বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, পাঁচ স্তরে মহারাষ্ট্রে আনলকিং শুরু হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের কী ভাবে, কোথায় আনলক শুরু হবে, তার রূপরেখাও বিস্তারিত জানান বিজয়। কিন্তু সেই ঘোষণার অব্যবহিত পরে মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়, এমন কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। রাজ্যে বিধিনিষেধ, কড়াকড়ি এখনও রয়েছে। নতুন নিয়মবিধি নিয়ে আলোচনা চলছে।
সরকারের বক্তব্য — আমরা করোনার সংক্রমণ পুরোপুরি রুখতে পারিনি এখনও। গ্রামাঞ্চলের কোথাও কোথাও এখনও সংক্রমণ ক্রমশ বাড়ছে। করোনাভাইরাসের পরিবর্তনশীল ও মারাত্মক রূপ দেখার পরে সবদিক বিবেচনা করেই বিধিনিষেধ শিথিল করা হবে কি না, সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। রাজ্যে জারি হওয়া বিধিনিষেধ এখনও তুলে নেওয়া হয়নি। বিধিনিষেধ শিথিল বা আরও জোরদার করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত সরকারই জানাবে।
তা হলে যে মন্ত্রী বিস্তারিত পরিকল্পনার কথা জানালেন? প্রশাসনের দাবি, বিষয়টি আলোচনা স্তরে রয়েছে। কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। স্থানীয় স্তরে সবকিছু বিবেচনা করে দেখে তবেই কিছু চূড়ান্ত হবে।
স্বাভাবিক ভাবেই এই সুযোগ হাতছাড়া করেনি বিরোধিরা। বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নভিস টুইটে লেখেন — কী খোলা, কী বন্ধ? লক নাকি আনলক? অপরিপক্কতা নাকি কৃতিত্ব নেওয়ার চেষ্টা? মানুষ সাংবাদিক বৈঠক নাকি সরকারি বিবৃতি, কোনটা বিশ্বাস করবেন, সে প্রশ্নও তুলেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top