বৃষ্টি, বন্যা, ধসে মহারাষ্ট্রে মৃত কমপক্ষে ১৩৮, নিখোঁজ অনেকে

Maharashtra-rain1.jpg

নৌকার পাশাপাশি হেলিকপ্টারেও চলছে উদ্ধারকাজ — ছবি টুইটার

Onlooker desk: ভারী বৃষ্টিতে মহারাষ্ট্রে (Maharashtra) মৃত্যু হল কমপক্ষে ১৩৮ জনের। এর মধ্যে অনেকে ধসের জেরে প্রাণ হারিয়েছেন। রায়গড় জেলাতেই ভূমি ধসে মারা গিয়েছেন অন্তত ৩৬ জন। ৮৪ হাজার ৪৫২ জনকে পুনেতে নিরাপদ আশ্রয়ে সরানো হয়েছে। এঁদের মধ্যে ৪০ হাজার মানুষ কেবল কোলাপুর জেলার।
গত ক’দিন ধরে মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) মূলত কোঙ্কন এলাকার জেলাগুলিতে লাগাতার ভারী বৃষ্টি (rain) হচ্ছে। যার জেরে হাজার হাজার মানুষ, বন্যা ও ধসের কবলে পড়েছেন। রায়গড়ের তিলায়ে গ্রামে পরিদর্শনে যান মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) মন্ত্রী একনাথ শিন্ডে। পরে সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘৩৩টি দেহ উদ্ধার হয়েছে। এখন ৫২ জন নিখোঁজ। ৩২টি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’

Maharashtra rain

চলছে উদ্ধারকাজ — ছবি টুইটার

সাতারা জেলাতেও বৃষ্টির (rain) ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। বন্যার জলে বহু মানুষ ভেসে গিয়েছেন। সাতারায় ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। গোন্ডিয়া, চন্দ্রপুরের মতো রাজ্যের পূর্বভাগের জেলাগুলিতেও বহু মানুষ মারা গিয়েছেন।
কোলাপুরের অন্তত ৫৪টি গ্রাম বন্যায় সম্পূর্ণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৮২১টি আংশিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। পঞ্চগঙ্গা নদী উপচে এই বিপর্যয়। ২০১৯-এর বন্যার থেকেও বেশি উচ্চতায় উঠেছে এ বারের জল।
রায়গড় ছাড়াও সাতারার অম্বেঘর এবং মীরগাঁও গ্রামে ধস নামে। কোলাপুরে বন্যা কবলিত গ্রামে একটি বাস ভেসে যাওয়ার আগের মুহূর্তে রক্ষা পায়। বাসটিকে ১১ জন যাত্রী ছিলেন। তাঁদের মধ্যে ৮ জনই নেপালি শ্রমিক।
সেনা, নৌসেনা, জাতীয় ও রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী-সহ বিভিন্ন সংস্থা মহারাষ্ট্রে হাজির হয়ে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে। আর্মি ও নেভির ছ’টি দল আজ, শনিবার কাজ শুরু করেছে। ধস কবলিত এলাকাগুলিতে আরও বহু মানুষের খোঁজ মিলছে না। বিচ্ছিন্ন অঞ্চলগুলি থেকে হেলিকপ্টারে করে উদ্ধার করা হচ্ছে আটকে পড়া মানুষকে। সে জন্য তাঁদের ছাদ বা অন্য উঁচু জায়গায় থাকার পরামর্শ দেয় প্রশাসন। যাতে সহজেই তাঁদের দেখা যায়।


প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে যাঁরা মারা গিয়েছেন, তাঁদের পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণের আশ্বাস দিয়েছে মহারাষ্ট্র (Maharashtra) সরকার। আহতদের চিকিৎসা হবে সরকারি খরচে। মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের অফিস থেকে জারি করা বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়েছে।
গত ক’দিনের প্রবল বৃষ্টিতে (rain) ভয়াবহ বন্যার শিকার হয়েছে মহারাষ্ট্রের রায়গড়, রত্নগিরি, পালঘর, থানে, সিন্ধুদুর্গ, কোলাপুর, সাংলি এবং সাতারা জেলা। আবহাওয়া দপ্তর আরও বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে। ছ’টি জেলায় রেড অ্যালার্ট জারি করেছে আবহাওয়া দপ্তর। এমনিতেই বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত জেলাগুলির সামনে অপেক্ষা করছে আরও বিপদ।

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top