কত প্রাণ হারাল! কেঁদে ভাসালেন মোদী

88850E49-45B0-4772-9E63-2ED62679B3CD.jpeg

Onlooker desk: কোভিড মোকাবিলায় নানা ক্ষেত্রের মানুষের সমালোচনায় বিদ্ধ তাঁর সরকার। তারইমাঝে সামনে এল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আবেগ। করোনায় মৃতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে কেঁদেইফেললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আজ, শুক্রবার নিজের কেন্দ্র বারাণসীতে চিকিৎসক ফ্রন্টলাইনওয়ার্কারদের সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্স করেন তিনি। তাঁদের ধন্যবাদ জানান এবং কান্নায় বুজে আসেগলা। মোদীর কথায়, ‘এই ভাইরাসটি আমাদের অনেক ভালোবাসার মানুষকে কেড়ে নিয়েছে। তাঁদেরপ্রতি বিনীত শ্রদ্ধা জানাই। এবং যাঁরা স্বজনকে হারিয়েছেন, তাঁদের প্রতি সহমর্মিতা।

এরপরে কান্না আবেগ সামলাতে বেশ খানিকক্ষণ নীরব থাকেন মোদী। নিজেকে সামলে বলতেথাকেন, ‘দ্বিতীয় ঢেউয়ে আমরা অনেকগুলি ক্ষেত্রের সঙ্গে একত্রে লড়াই করছি। সংক্রমণের হার বেশিএবং অসুস্থ মানুষদের অনেক বেশিদিন হাসপাতালে থাকতে হচ্ছে।

একই কথা বেশ কিছুদিন ধরে বলে আসছেন বিরোধীরা। এবং তা মোকাবিলায় সরকার যে ব্যর্থ, তানিয়েও তাঁরা সরব। অভিযোগ, দ্বিতীয় ঢেউ আসবে জেনেও বিন্দুমাত্র প্রস্তুতি নেয়নি সরকার। উল্টেতড়িঘড়ি কোভিডের বিরুদ্ধে জয় ঘোষণা করে বসে। তাদের সেই আত্মতুষ্টির খেসারত দিয়ে চলেছে গোটাদেশ। নিজের দেশের মানুষের জন্য বন্দোবস্ত নারেখে বিদেশে টিকা রপ্তানি নিয়েও মুখ পুড়েছে মোদীসরকারের। পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের আগে কার্যত ডেলি প্যাসেঞ্জারি করে মোদীএবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ যে রকম প্রচার চালিয়েছেন, তাতে করোনা সংক্রমণ লাগামছাড়া ভাবেবেড়েছে বলে অভিযোগ বিরোধীদের। আন্তর্জাতিক স্তরে স্বীকৃত সম্মানিত মেডিক্যাল জার্নালল্যানসেটেও প্রবল সমালোচনা করপা হয় মোদীর। দিন অবশ্য ভিডিয়ো কনফারেন্সে আত্মতুষ্ট নাহওয়ার কথা বলেছেন নমো।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top