সায় মিলল নতুন পরিকল্পনায়, এ বছরের মধ্যেই ফের উড়বে জেট

images-3.jpeg

Onlooker desk: এ বছরের মধ্যেই ফের আকাশে ডানা মেলবে জেট এয়ারওয়েজ। বন্ধ হয়ে যাওয়া সংস্থার পুনর্নবীকরণের পরিকল্পনায় আজ, মঙ্গলবার সম্মতি দিয়েছে ন্যাশনাল কোম্পানিজ ল ট্রাইবুনাল। আগামী ৯০ দিনের মধ্যে বিমান সংস্থার নতুন রুটগুলি চূড়ান্ত হয়ে যাবে। এই কাজের সঙ্গে জড়িত এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক এ কথা জানান।
আশিস ছাছাড়িয়া নামে ওই ব্যক্তি বলেন, ‘এ বছর জেটকে ফের আকাশে দেখা যাবে, এ কথা বলাই যায়।’ তিনি গ্লান্ট থর্নটন অ্যাডভাইজরির হেড অফ রিস্ট্রাকচারিং সার্ভিসেস। এই সংস্থাটিকে জেটের পুনর্নবীকরণ দেখার দায়িত্ব দিয়েছিল একটি কনসর্টিয়াম। তাতে রয়েছে লন্ডনের ক্যালরক ক্যাপিটাল এবং আরব আমিরশাহীর ব্যবসায়ী মুরারীলাল জালান। মুরারীই বর্তমানে জেটের মালিক।
২০১৯-এর এপ্রিলে জেটের সমস্ত উড়ান জোর করে বন্ধ করে দেওয়া হয়। কারণ বিপুল ক্ষতি সামলাতে পারছিল না তারা। বিভিন্ন ব্যাঙ্কে তাদের ঋণের পরিমাণ ৮০০০ কোটি টাকা। ন্যাশনাল কোম্পানিজ ল ট্রাইবুনাল বিমান সংস্থাকে স্লট দেওয়ার জন্য ৯০ দিন সময় বেঁধে দিয়েছে। এর মধ্যে এই কাজ করতে হবে ডিজিসিএ এবং কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রককে।
এর পরেই স্বাভাবিক ভাবে আসছে নিয়োগের প্রসঙ্গ। পুরোনো কর্মীদের কতজন ফিরে পাবেন কাজ? আশিস বলেন, ‘প্রথম দিনেই তো ১২০ জনকে ফেরানো যাবে না। ধীরে ধীরে যত উড়ান বাড়বে,তত বেশি প্রশিক্ষিত কর্মীর প্রয়োজন হবে। গ্রাউন্ড স্টাফ, পাইলট, কেবল ক্রু — সবই প্রয়োজন হবে। তাই সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নিয়োগও হবে।’ প্রথমে ২০টি ন্যারো-বডিড ও পাঁচটি ওয়াইড-বডিড এয়ারক্রাফ্ট দিয়ে উড়ান শুরু হবে। প্রথম দিন না হলেও অল্প সময়েই এই উড়ানগুলি আসবে।
বিভিন্ন বিমানবন্দর, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক ও ডিজিসিএ-র সঙ্গে আলোচনা চলছে। বিভিন্ন জাতীয়, আন্তর্জাতিক রুট ও স্লট নিয়ে চলছে কথা। আশিস বলেন, ‘জেটের আগের স্লটগুলি পাওয়া যাবে না। এ জন্য আমরা কিছুটা হতাশ। তবে একেবারে ওই সময় না হলেও একটু কাছাকাছির স্লট পেলে সুবিধা হয়।’
সেই সঙ্গে তাঁর দাবি, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে গোটা বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের খোলনলচে বদলাচ্ছে। আমার আশা, আরও সুযোগ পাওয়া যাবে। এবং এই সময়টা যথেষ্ট আশাব্যঞ্জক।’
আজই নতুন পরিকল্পনায় সায় মিলেছে। এ বার রানওয়ে, লাইসেন্স, এয়ারক্রাফ্ট, ক্রু — সবই প্রস্তুত করে ফেলতে হবে বলে আশিস জানান। পাশাপাশি, জেটের প্রতি যাত্রীদের আস্থার কথাও জানিয়েছেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘তাঁরা ফের জেটকে উড়তে দখলে আসন ভরাতে বেগ পেতে হবে না বলে আশা রাখছি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top