২০ জুলাইয়ের মধ্যে ফল আইএসসি-র, কাল কোর্টে রিপোর্ট সিবিএসই-র

86E45ABC-88EA-4FD6-9AFD-2C6B4E627EE4.jpeg

Onlooker desk: মূল্যায়নের পদ্ধতি ও ফলপ্রকাশের দিন জানাল আইসিএসই কাউন্সিল (CISCE)।
একাদশ ও দ্বাদশের অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের ভিত্তিতে তৈরি হবে দ্বাদশের (ISC) ফল। আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে তা প্রকাশিত হবে বলে জানিয়েছে (CISCE)। ২০১৫ থেকে ২০২০ পর্যন্ত পাওয়া সর্বোচ্চ নম্বরও বিবেচনা করবে কাউন্সিল।
করোনার জেরে এ বার দ্শম ও দ্বাদশের পরীক্ষা বাতিল করেছে দুই দিল্লি বোর্ডই। অর্থাৎ কাউন্সিল ফর দ্য ইন্ডিয়ান স্কুল সার্টিফিকেট এগজামিনেশনস (CISCE)। এবং সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন বা সিবিএসই (CBSE)। যার জেরে বিকল্প মূল্যায়নের পদ্ধতি ও ফলপ্রকাশ নিয়ে চলছে আলোচনা।
কাল, বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) মূল্যায়নের পদ্ধতি জানানোর কথা সিবিএসই-র (CBSE)। এই রিপোর্ট তৈরির জন্য ১৩ সদস্যের প্যানেল তৈরি হয়েছে। মূল্যায়নের পদ্ধতি জানাতে আগেই দু’সপ্তাহ সময় দিয়েছিল কোর্ট। কেন্দ্র এবং আইসিএসই কাউন্সিলকেও (CISCE) ওই বর্ধিত সময় দেওয়া হয়েছিল।
দেশজুড়ে করোনার (Corona) জেরে অনিশ্চয়তা তুঙ্গে। দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশের বেহাল স্বাস্থ্য পরিকাঠামো প্রকট হয়েছে। সব মিলিয়ে পরীক্ষা নিয়ে চরম অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। সে কারণে দুই দিল্লি বোর্ডের পরীক্ষা নিয়েই আলোচনায় বসে কেন্দ্র। এ প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য দেশের সমস্ত রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ও বোর্ডের কর্তাদের নিয়েও বৈঠকে বসে তারা। তার পরে গত ১ জুন সিবিএসই দ্বাদশের পরীক্ষা বাতিল করা হয়। আগেই দশমের পরীক্ষা বাতিল করেছিল দুই বোর্ড।
পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে এই সিদ্ধান্ত। সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court) একে স্বাগতই জানিয়েছে। কিন্তু পাশাপাশি জানতে চেয়েছিল, পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন হবে কোন পথে। কেন্দ্রীয় সরকার দু’সপ্তাহে পদ্ধতি জানানোর কথা বলে। আইসিএসই কাউ্নিসল (CISCE) অবশ্য চার সপ্তাহ সময় চেয়েছিল। সেই সূত্রে কোর্ট জানায়, তাতে দেরি হয়ে যাবে। বিশেষত ছাত্রছাত্রীদের বিদেশে পড়তে যাওয়ার ক্ষেত্রে তা প্রভাব ফেলবে। এই সূত্রেই কাল মূল্যায়নের পদ্ধতি কোর্টকে জানাবে সিবিএসই (CBSE)।
সিবিএসই (CBSE) একটি নতুন নির্দেশিকা জারি করেছে। এতে স্কুলস্তরে অ্যাসেসমেন্ট এবং প্র্যাক্টিক্যাল টেস্টের পদ্ধতি বদলেছে। অনুমোদিত স্কুলগুলিকে দ্রুত অভ্যন্তরীণ ও প্র্যাক্টিক্যাল পরীক্ষা শেষ করতে বলা হয়েছে।
পশ্চিমবঙ্গে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের সম্ভাব্য সময় ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানানো হয়, অগস্টে মাধ্যমিক হবে। উচ্চ মাধ্যমিক জুলাইয়ে। কিন্তু করোনার দাপট কমেনি। যার জেরে এখানেও বাতিল হয়েছে দুই পরীক্ষা। সোমবার মূল্যায়নের বিকল্প পদ্ধতি জানানোর কথা ছিল। কিন্তু তার মধ্যে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়নি। আগামী সোমবার তা জানানো হয়ে পারে।
সূত্রের খবর, উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফলে মাধ্যমিকের নম্বরও বিবেচনা করা হতে পারে। মাধ্যমিকে আবার নবমের বার্ষিক পরীক্ষার নম্বর দেখা হবে। সেই সঙ্গে দশম শ্রেণির অন্তর্বর্তী মূল্যায়নের ফলেও গুরুত্ব থাকবে। এ ভাবেই মূল্যায়নের কথা ভাবা হয়েছে বলে খবর।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top