স্বস্তি বজায় রেখে আরও কমল দৈনিক সংক্রমণ, মৃত্যুও ৩০০০ এর নীচে

MAHARASTRA-COVID.jpg

Onlooker desk: স্বস্তির ধারা অব্যাহত থাকল। আরও কমে মঙ্গলবার গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে ১ লক্ষ ২৭ হাজারের শরীরে হদিস মিলল করোনা সংক্রমণের। মৃত্যুও নামল তিন হাজারের নীচে। এ দিন মারা গিয়েছেন ২ হাজার ৯৭৫ জন। পজিটিভিটির হার গত এক সপ্তাহ ধরেই ১০ শতাংশের নীচে। মঙ্গলবার তা ৬.৬ শতাংশবলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।
তবে এখন দেশে নতুন করে চিন্তা বাড়াচ্ছে তামিলনাড়ু। সেখানে একদিনে ২৭ হাজার ৯৩৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। বরং এতদিন যে মহারাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি কেসের হদিস মিলছিল, সেখানে পরিস্থিতি অনেকটা ভালো। বিধিনিষেধ শিথিল করে কিছুটা ছাড়ও শুরু হয়েছে। কড়াকড়ি শিথিলের পথে হাঁটতে শুরু করেছে পশ্চিমবঙ্গ, উত্তর প্রদেশ, রাজস্থানও।
টিকাকরণ নিয়ে অবশ্য এখনও খুব স্পষ্ট দিশা দেখাতে পারছে না সরকার। ভ্যাকসিনেশন পলিসির নানা অসঙ্গতি ও বৈষম্য নিয়ে সোমবার সুপ্রিম কোর্টের জোরালো প্রশ্নের মুখে পড়েছে কেন্দ্র। যদিও সরকার বারবারই বলার চেষ্টা করছে, এ বছরের মধ্যে দেশের সমস্ত মানুষের টিকাকরণ সম্পন্ন করা হবে। তারপরেও টিকা নিয়ে স্বস্তি নেই।
এরই মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) সোমবার জানিয়েছে, ভারতে যে বি.১.৬১৭ স্ট্রেনের প্রথম খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল, সেটিকে এখন আর ভারতীয় স্ট্রেন বলা হবে না। বলা হবে ডেল্টা ভ্যারিয়ান্ট। গ্রিক হরফের নামে স্ট্রেনগুলির নামকরণ করা হলে সাধারণ মানুষের পক্ষেও তা বোঝা সহজ হবে বলে মনে করছে হু। সংস্থা আগেই জানিয়েছিল, প্রথম খোঁজ মিললেই কোনও দেশের নামকে সংশ্লিষ্ট ভ্যারিয়ান্টের সঙ্গে যুক্ত করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top