রামদেবের মন্তব্যের প্রতিবাদে আজ ‘ব্ল্যাক ডে’ চিকিৎসকদের

IMG-20210601-WA0006.jpg

Onlooker desk: যোগগুরু রামদেবের অ্যালোপ্যাথি মন্তব্যের প্রতিবাদে আজ, মঙ্গলবার ‘ব্ল্যাক ডে’ পালন করছেন চিকিৎসকরা। সপ্তাহখানেক আগে অ্যালোপ্যাথিকে ‘বুদ্ধিহীন, দেউলিয়া’ বিজ্ঞান বলেছিলেন রামদেব। ১৫ দিনের মধ্যে সেই মন্তব্যের জন্য প্রকাশ্যে ক্ষমা না-চাইলে তাঁর বিরুদ্ধে ১০০০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করা হবে বলে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ)।
আজ ব্ল্যাক ডে পালনের ডাক দিয়েছে দ্য ফেডারেশন অফ রেসিডেন্ট ডক্টর্স অ্যাসোসিয়েশন (ফরডা)। তাদের বক্তব্য, রামদেবের মন্তব্য নিয়ে চিকিৎসকদের ঘোরতর আপত্তির পরেও যোগ গুরুর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। ফরডা-র সভাপরি, চিকিৎসক মণীশ জানান, তাঁরা আয়ুর্বেদের বিরুদ্ধে নন। তাঁরা রামদেবের বিরুদ্ধে। সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘আমরা রামদেবের সঙ্গে কোনও তর্কেই যেতে চাই না। কে উনি? অতিমারীতে উনি কেবল নিজের ব্যবসা বাড়িয়েছেন। আর এই সময়ে চিকিৎসকরা দিন-রাত এক করে পরিশ্রম করেছেন। জীবন দিয়েছেন। আজকের প্রতিবাদ দিবসে ১০ হাজার চিকিৎসক যোগ দেবেন বলে আশা করছি। এর বিরুদ্ধে আমরা সব রকম পদক্ষেপ করব। প্রয়োজনে কোর্টে যাব।’ প্রতিবাদকে সমর্থন জানিয়েছে আইএমএ। কর্মক্ষেত্রে কালো ব্যাজ পরে কালা দিবস পালন করছেন এই সংগঠনের সদস্যরাও।
রামদেব কেবল অ্যালোপ্যাথিকে নিশানা করেই থামেননি। তাঁর অভিযোগ, করোনায় যত মানুষ মারা গিয়েছেন, তার চেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসার জন্য। এ নিয়ে তুমুল বিতর্ক বাধতেই রামদেবের সংস্থা পতঞ্জলি বলার চেষ্টা করে, তাঁর মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। কিন্তু চিকিৎসকদের অনড় মনোভাব ও শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের চিঠির জেরে মন্তব্য প্রত্যাহারে এক রকম বাধ্য হন রামদেব। তার পরেও একের পর এক টুইটে অ্যালোপ্যাথিকে নিশানা করে গিয়েছেন তিনি। তাঁকে গ্রেপ্তারির দাবি ওঠে। সেই দাবি টুইটারে ট্রেন্ডিং-ও হয়। কিন্তু কোনও কিছুতেই না-থেমে দিনকয়েক বাদে ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োয় দেখা যায়, রামদেব দাবি করছেন, কারও বাপ তাঁকে গ্রেপ্তার করতে পারবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top