অসম্ভব নির্দেশ নয়, হাইকোর্টকে পরামর্শ সর্বোচ্চ আদালতের

Supreme-Court-of-India.jpg

সুপ্রিম কোর্ট

Onlooker desk: করোনা পরিস্থিতিতে কার্যকর করা অসম্ভব, এমন নির্দেশ দিতে হাইকোর্টগুলিকে নিষেধ করল সুপ্রিম কোর্ট।
সম্প্রতি এলাহাবাদ হাইকোর্ট একটি নির্দেশে জানায়, চার মাসের মধ্যে উত্তর প্রদেশের সমস্ত নার্সিং হোমের বেডে অক্সিজেনের সুবিধা রাখতে হবে। এক মাসের মধ্যে রাজ্যের প্রতিটি গ্রামে যাতে আইসিইউ-সুবিধাযুক্ত দু’টি করে অ্যাম্বুল্যান্স থাকে, রাজ্য সরকারকে তা-ও নিশ্চিত করতে বলে হাইকোর্ট। এ নিয়ে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করে এলাহাবাদ হাইকোর্টের ওই নির্দেশে স্থগিতাদেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট।
সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি বিনীত সারন ও বিচারপতি বি আর গভাইয়ের বেঞ্চ শুক্রবার বলে — হাইকোর্টগুলির এমন নির্দেশই দেওয়া উচিত যা কার্যকর করা সম্ভব। তবে গত সোমবার এলাহাবাদ হাইকোর্ট গ্রামীণ এলাকার চিকিৎসা পরিকাঠামো ‘রামের ভরসায়’ চলছে বলে যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছিল, তা খারিজ করতে রাজি হয়নি সুপ্রিম কোর্ট। এ ধরনের পর্যবেক্ষণ পরামর্শের মতো করে নেওয়া দরকার বলে মত শীর্ষ কোর্টের।
উত্তর প্রদেশ সরকারের তরফে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা সুপ্রিম কোর্টে আবেদনে জানিয়েছিলেন, এ ধরনের মন্তব্য স্বাস্থ্যকর্মীদের মনোবল ভেঙে দেয় ও আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি করে। এর প্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্ট বলে — এই পর্যবেক্ষণগুলি সাধারণ মানুষের আতঙ্ক-উদ্বেগের প্রতিফলন। উত্তর প্রদেশ এটাকে নির্দেশ হিসাবে না দেশে পর্যবেক্ষণ ও পরামর্শ হিসাবে দেখুক।
করোনার প্রথম ঢেউ থেকে এ পর্যন্ত ১৬ লক্ষ ৫১ হাজার মানুষ সংক্রামিত হয়েছেন উত্তর প্রদেশে। গত মাসে দৈনিক সংক্রমণ ২০ হাজারের গণ্ডি পেরিয়ে যায়। সরকারের দাবি, অক্সিজেন বা স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর কোনও খামতি নেই। যদিও বাস্তব অন্য কথা বলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top