মিঃ মোদী, আসুন আমাদের কথা শুনুন — ভিডিয়ো টুইট করে বার্তা ডেরেকের

Modi2.jpg

Onlooker desk: সংসদের বাদল অধিবেশন শেষ হতে আর এক সপ্তাহ। তার আগে একাধিক বিরোধী নেতার বার্তা নিয়ে একটি ভিডিয়ো টুইট করলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন (Derek O’Brien)। যার ক্যাপশনে লিখলেন — মিঃ মোদী, আসুন আমাদের কথা শুনুন।
পেগ্যাসাস স্পাইওয়্যার থেকে কৃষক আন্দোলন — নানা ইস্যুতে সংসদে আলোচনা চেয়ে সরব বিরোধীরা। কিন্তু সরকার এখনও সে পথে হাঁটেনি। এই পরিস্থিতিতে রবিবার তিন মিনিটের ভিডিয়োটি টুইট করেন ডেরেক (Derek O’Brien)।
সেখানে দেখা যাচ্ছে কংগ্রেসের মল্লিকার্জুন খাড়্গে বলছেন — গত ১৪ দিন ধরে আমরা আলোচনা চাইছি। কিন্তু আপনি আলোচনায় আসছেন না। আপনি এখন বিল পাশ করছেন। সাহস থাকলে আলোচনায় আসুন।
শরদ পাওয়ারের ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির বন্দনা চভন বলেন — এই সরকার অকারণে মানুষের জীবনে আড়ি পাতছে। মানুষের কথা শুনছে না। কিন্তু পেগ্যাসাসের (Pegasus) মতো সংস্থাকে নিয়ে আসছে। এটা লজ্জার।
আরজডি-র মনোজ ঝা-এর কথায় — পেগ্যাসাস (Pegasus) প্রত্যেকের বাড়িতে পৌঁছে গিয়েছে। আমাদের এ নিয়ে আলোচনা করতে হবে।
আম আদমি পার্টির সুশীল কুমার গুপ্তা বলছেন —দিল্লিতে একটি দলিত মেয়েকে ধর্ষণ-খুন করে সৎকার করে দেওয়া হল। সরকার সে বিষয়ে একটি কথাও বলছে না।
কংগ্রেসের দীপেন্দর সিং হুদা, যিনি কৃষক আন্দোলনকেও সমর্থন করছেন, তাঁর বক্তব্য — আমার মাইক্রোফোন অফ করে দেওয়া না-হলে কৃষক ইস্যুতে কথা বলব।
সিপিএমের অভিযোগ, সরকার সংসদের গণতন্ত্র চুরি করছে।
তৃণমূলের সুখেন্দুশেখর রায় সংসদে বাক্ স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল করেছেন ভিডিয়োয়।
ডিএমকে-ও সরব। তাদের কথায় — গণতন্ত্রের মান নিয়ে আলোচনা করা যাক।
বেশিরভাগ বিরোধী দলই সরকারের বিরুদ্ধে একনায়কতন্ত্রের অভিযোগ তুলেছে।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এ যাবৎ একদিন সংসদে এসেছেন। প্রথম দিন ওপেনিং রিমার্কস দিতে। সেই সঙ্গে নতুন মন্ত্রীদের পরিচিত করাতে। কিন্তু প্রথম দিন থেকেই সংসদে তুমুল হই-হট্টগোল চলছে। সে দিনও মাঝপথে অধিবেশন থেমে যায়।
সংসদের বাদল অধিবেশন শুরু হয়েছে গত ১৯ জুলাই। তার আগের দিনই পেগ্যাসাস (Pegasus) বিতর্ক সামনে আসে। বিরোধী রাজনৈতিক নেতা, সাংবাদিক থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী — সকলেই ফোনে আড়ি পাতার টার্গেট লিস্টে রয়েছেন বলে খবর। দেশের ৩০০ মানুষের নাম ওই তালিকায় রয়েছে বলে একটি সংবাদমাধ্যমের দাবি। তারপর থেকে সংসদে এই বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় চলছে।
সরকার অবশ্য পেগ্যাসাসের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করেছে। সংসদের অধিবেশন ব্যাহত করার দায় বিরোধী, বিশেষ কংগ্রেসের উপরে চাপিয়েছে সরকার। কংগ্রেসের বক্তব্য, আলোচনার পথে না গিয়ে সরকারই অধিবেশন ব্যাহত করছে।

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top