হাইড্রোজেন বেলুন বেঁধে কুকুরকে শূন্য উড়িয়ে বিপাকে ইউটিউবার

gauravzone-flying-dog.jpg

Onlooker desk: পোষা কুকুরের পিঠে হাইড্রোজেন বেলুন বেঁধে শূন্যে উড়িয়ে গ্রেপ্তার হলেন দিল্লির এক ইউটিউবার। তাঁর চ্যানেলের নাম ‘গৌরবজোন’। সম্প্রতি ওই ভিডিয়ো আপলোড করে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।
ভিডিয়োটি এখন ডিলিট করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে দেখা যায়, ওই ইউটিউবার তাঁর কয়েকজন বন্ধু ও পোষ্য ডলারকে নিয়ে পার্কে গিয়েছেন। কুকুরটির শরীরের উপরের ভাগে রংবেরঙের হাইড্রোজেন বেলুন বাঁধা। বিষয়টি ব্যাখ্যা করে গৌরব নামে ওই ইউটিউবারকে বলতে শোনা যায়, ‘কুকুরের শরীরের উপরের অংশটা অল্প অল্প উড়তে শুরু করেছে। এর পরে বেলুনের গুচ্ছ উপরের দিকে টেনে কুকুরটিকে আরও একটু শূন্যে তুলছেন বলে দেখা গিয়েছে।
সেখানে শেষ হয়নি নির্যাতন। এই পরিস্থিতিতে কুকুরটিকে দৌড়তে বলেন গৌরব। তাতে সে আরও খানিকটা উপরে উঠবে বলে তাঁর দাবি। কুকুরটিকে শূন্যে ভাসিয়ে রাখার জন্য তার শরীরে আরও বেলুন বেঁধে দেওয়া হয়। কয়েক মুহূর্তের মধ্যে ভেসে চলে যেতে থাকে ডলার। গৌরবের সঙ্গে থাকা এক মহিলা কোনওরকমে সেটিকে ধরে ফেলেন।
একই ভিডিয়োয় দেখা যায়, সরু গলি দিয়ে চার চাকা গাড়িতে বসে যাচ্ছেন গৌরব। কুকুরটি শূন্যে ভাসছে এবং এক সময়ে দোতলা একটি বারান্দার কাছে পৌঁছে যায় সে।
ভিডিয়োটি সামনে আসতে প্রতিবাদ, সমালোচনার ঝড় ওঠে। ইউটিউবে গৌরবের ৪০ লক্ষেরও বেশি ফলোয়ার। তাঁর ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে আইনের বিভিন্ন ধারায় মালব্য নগর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।
দিনতিনেক আগে ক্ষমাপ্রার্থনা করে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেন গৌরব। কেন ‘ফ্লাইং ডগ’ ভিডিয়োটি ডিলিট করেছেন তার ব্যাখ্যা দেওয়ার পাশাপাশি জানান, ওই শুটিংয়ের আগে সব রকম সুরক্ষা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। ভিডিয়ো দেখে প্রভাবিত হয়ে কেউ যাতে এমনটা করার চেষ্টা না করেন, সে জন্যও আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top