দেশে দৈনিক সংক্রমণ ৩৬ হাজার, ওডিশায় একদিনে ১৩৮ শিশু আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বেগ

WhatsApp-Image-2021-07-15-at-11.30.02-AM.jpeg

Onlooker desk: রবিবার গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৬ হাজার ৮০৩টি করোনা (Corona) সংক্রমণের হদিস মিলল ভারতে (India)। দৈনিক পজিটিভিটির হার পৌঁছল ১.৮৮ শতাংশে। এ দিন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক এ কথা জানিয়েছে। এই সময়ের মধ্যে করোনার জেরে প্রাণ হারিয়েছেন ৪৯৩ জন।
তবে গত ২৪ ঘণ্টায় রোগমুক্তও হয়েছেন বহু মানুষ। ভারতে (India) করোনা থেকে সেরে উঠেছেন ৩৭ হাজার ৯২৭ জন। এ নিয়ে এ পর্যন্ত গোটা দেশে ভাইরাসের কবল থেকে মুক্ত হয়েছেন ৩ কোটি ১৩ লক্ষ ৭৬ হাজার ১৫ জন। করোনামুক্তির হার এখন ৯৭.৪৬ শতাংশ।
বর্তমানে গোটা দেশে ৩ লক্ষ ৮৫ হাজার ৩৩৬ জন করোনায় আক্রান্ত। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের নিরিখে ১.২০ শতাংশ।
এ দিকে পশ্চিমবঙ্গে এ দিন করোনায় (Corona) নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৭৩ জন। দেশের মতো এখানেও আক্রান্তের তুলনায় রোগমুক্তের সংখ্যা বেশি। এ রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় ৭০৯ জন রোগমুক্ত হয়েছেন। মারা গিয়েছেন ১২ জন।
সে জায়গায় কেবল মুম্বইতেই ২৬৭টি নতুন করোনা (Corona) সংক্রমণের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। মারা গিয়েছেন ৪ জন। দেশের বাণিজ্য নগরীতে এ পর্যন্ত ৭ লক্ষ ৩৯ হাজার ৩৩৬ জন করোনায় সংক্রামিত হয়েছেন। আর নতুন করে ৪ জনের মৃত্যুর জেরে মোট মৃতের সংখ্যা পৌঁছল ১৫ হাজার ৯৮৯-এ। এই নিয়ে গত এক সপ্তাহে সাত দিনই মুম্বইয়ের দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ৩০০-র নীচে থাকল।
বৃহন্মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন (বিএমসি)-এর প্রকাশিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে জানানো হয়েছে, হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৩০৮ জন। অর্থাৎ মুম্বইয়েও আক্রান্তের তুলনায় রোগমুক্তের সংখ্যা বেশি। মুম্বইয়ে এ পর্যন্ত ৭ লক্ষ ১৮ হাজার ৮৩ জন করোনামুক্ত হয়েছেন। শহরে এখন ২,৮৩৪ জন করোনায় আক্রান্ত।
এ দিকে, টিকার দু’টি ডোজ নিয়েছেন, এমন নাগরিকরা রবিবার থেকে লোকাল ট্রেনে উঠতে পারছেন। তবে সকলকে কঠোর ভাবে কোভিড-বিধি মানতে হচ্ছে।
অন্যদিকে, কর্নাটকে গত একদিনে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১,৪৩১ জন। এ পর্যন্ত মোট ২৯ লক্ষ ২৯ হাজার ৪৬৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এই রাজ্যে।
ওডিশায় রবিবার একদিনে ১,০৫৮ জনের কোভিড ধরা পড়েছে। উদ্বেগের বিষয় হল, এদের মধ্যে ১৩৮টি শিশু রয়েছে। একদিনে করোনায় মারা গিয়েছেন ৬৪ জন। ওডিশায় এ পর্যন্ত ৬,৮৮৭ জনের মৃত্যু হল ভাইরাসে। একসঙ্গে এতজন শিশু আক্রান্ত হওয়ায় তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ল কি না, সে প্রশ্ন উঠেছে। স্বাস্থ্য দপ্তর এ নিয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেনি। তবে বিষয়টি যে উদ্বেগের, তা মানছেন সরকারি আধিকারিকরা।

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top