পঞ্চমের ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে ভিডিয়ো ভাইরালের অভিযোগে ধৃত ৮ নাবালক-সহ ৯

IMG-20210602-WA0009.jpg

Onlooker desk: স্কুলের ভিতরে পঞ্চম শ্রেণির এক বালিকাকে গণধর্ষণ করে তার ভিডিয়ো বানিয়ে ভাইরাল করার অভিযোগে ন’জনকে গ্রেপ্তার করা হলো হরিয়ানার রেওয়াড়িতে। ধৃতদের মধ্যে একজনের বয়স ১৮। বাকিরা সবাই নাবালক। তাদের মধ্যে পাঁচ জনের বয়স ১২ থেকে ১২ বছরের মধ্যে। তাদের দাবি, একটি পর্ন ভিডিয়ো দেখার পর এবং ওই ১৮ বছরের তরুণের উস্কানিতে তারা এই কাণ্ড ঘটিয়েছে। নিগৃহীতা এবং অভিযুক্তরা সকলেই পরিচিত।
পুলিশের কাছে অভিযোগে বছর দশেকের ওই বালিকার পরিবার জানিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৪ মে। মেয়েটি সে দিন বাড়ির বাইরে খেলা করছিল। সেই সুযোগে অভিযুক্তরা এই কাণ্ড ঘটায়। কিন্তু পরিবারটি এতদিন কিছু জানতে পারেনি। ধর্ষণের ভিডিয়ো ভাইরাল হয়ে তাদের কাছেও পৌঁছেছে। তখনই বিষয়টা পরিষ্কার হয় ওই বালিকার পরিবারের কাছে।
রেওয়াড়ির ডিএসপি (হেডকোয়ার্টার্স) হংসরাজ জানান, গত ৮ জুন মেয়েটির পরিবার অভিযোগ দায়ের করেছে। তিনি বলেন, ‘বাড়ির কাছে একটি সরকারি স্কুলের ভিতরে নিয়ে গিয়ে ওই বালিকাকে ধর্ষণ করে অভিযুক্তরা। সেখানেই না থেমে ঘটনাটির ভিডিয়ো করে। এই ঘটনার কথা কাউকে বললে পরিণতি মারাত্মক হবে বলে ভয় দেখায়। তারপরে ওই ভিডিয়ো ভাইরাল করে দিয়ে বালিকাকে ব্ল্যাকমেল করতে শুরু করে অভিযুক্তরা।’
ধৃত ১৮ বছরের তরুণকে জেল হেফাজতে পাঠিয়েছে রেওয়াড়ির নিম্ন আদালত। বাকি আট নাবালকের মধ্যে পাঁচ জনকে পাঠানো হয়েছে অবজারভেশন হোমে। আর যে তিন জন ঘটনাটির ভিডিয়ো করেছে, তাদেরও হোমে পাঠানো হয়েছে।
ডিএসপি বলেন, ‘নিগৃহীতা এবং অভিযুক্ত নাবালকদের কাউন্সেলিং করা হবে।’ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ১২ বছরের নীচে কাউকে গণধর্ষণ (৩৭৬ডিবি), পকসো, আইটি অ্যাক্ট এবং এসসি-এসটি আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।
হরিয়ানার শিশু সুরক্ষা কমিশনের চেয়ারপার্সন জ্যোতি বাইন্দা বলেন, ‘মারাত্মক ঘটনা। এবং মেয়েটি অত্যাচারিত হওয়ার পরেও বহুদিন বাবা-মাকে কিছু জানায়নি। ওর দেখভালের জন্য আমরা একজনকে নিয়োগ করব। তা ছাড়া, ঘটনায় জড়িত সকলেই একে অন্যের পরিচিত বলে ওই পাড়ার ব্যাপারে রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে মেয়েটিকেও আমরা হোমে পাঠানোর ব্যবস্থা করব।’
সম্প্রতি হরিয়ানাতেই একটি মেয়েকে যৌন হেনস্থার হাত থেকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ হারান বক্সার তথা মডেল এবং অভিনেতা কমলেশ। রাহুল ও সানি নামে দুই ব্যক্তি তাঁকে কুপিয়ে মারে বলে অভিযোগ। গত মঙ্গলবার রাতের ওই ঘটনায় বাড়ির ভিতরে ঢুকে একটি মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা করে রাহুল এবং সানি নামে দু’জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top