প্রবল বর্ষণে মুম্বইয়ে বাড়ি ভেঙে মৃত ১১, বেশিরভাগই শিশু

building-collapses-in-Mumbai.jpg

দুর্ঘটনার পর চলছে উদ্ধার কাজ

Onlooker desk: একটি দোতলা বাড়ি পাশের অন্য বাড়ির উপরে ভেঙে পড়ায় অন্তত ১১ জনের মৃত্যু হলো মুম্বইয়ের পশ্চিম মালাডের মালভানির বস্তি এলাকায়। মৃতদের মধ্যে আটটি শিশুও রয়েছে। বুধবার রাত ১১টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। আহত অনেকে। বুধবার প্রবল বর্ষণে কার্যত স্তব্ধ হয়ে যায় মুম্বই। বর্ষণের জেরেই বাড়িটি ভেঙে পড়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। এলাকার বাড়িগুলির অবস্থা ভালো নয়।
বৃহন্মুম্বই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন (বিএমসি)-এর ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট সেল জানিয়েছে, বুধবার রাত ১১টা ১০ মিনিট নাগাদ মালভানির আব্দুল হামিদ রোডে নিউ কালেক্টর কম্পাউন্ড বস্তিতে ঘটনাটি ঘটে। কালেক্টরের জমিতে বস্তিটি তৈরি। আশপাশের তিনটি বাড়ির বাসিন্দাদের বের করে আনা হয়। একে বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত। তার উপরে এমন দুর্ঘটনায় রাতের বেলা মাথার উপরে ছাদ হারিয়ে এলাকার মানুষের অসহায়তার শেষ নেই। কোনওমতে প্রাণটুকু নিয়ে বেরিয়ে এসেছেন তাঁরা।


অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার দিলীপ সাওয়ান্ত সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। একটি জি+২ বিল্ডিং পাশের বাডি়র উপরে ভেঙে পড়ে। এ পর্যন্ত ১৮ জনকে উদ্ধার করা গিয়েছে। তাঁদের মধ্যে ১১ জনই মৃত। যথাযথ তদন্ত চালিয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ করবে পুলিশ।’ মুম্বইয়ের জোন ১১-র ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিশ বিশাল ঠাকুর বলেন, ‘আরও অনেকে ভেঙে পড়া বাড়ির স্তূপে আটকে থাকতে পারেন। উদ্ধারকারী দল তাঁদের উদ্ধারের চেষ্টা করছে।’ উদ্ধারকাজে হাত লাগিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও। রাজ্যের মন্ত্রী আসলাম শেখ ঘটনাস্থলে যান। পরে জানান, বৃষ্টির জন্যই বাড়িটি ভেঙে পড়েছে। আহতদের বিডিবিএ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
কিন্তু এ নিয়ে রাজনৈতিক তরজা থেমে নেই। বিজেপির মুখপাত্র রাম কদম একটি টুইটে নিশানা করেছেন শিবসেনাকে। সেখানে তিনি লিখেছেন — শিবসেনা শাসিত বিএমসি-র গাফিলতির জন্যই মালভানির ঝোপড়পট্টিতে এমন ঘটনা ঘটেছে। এটি কোনও দুর্ঘটনা নয়, হত্যা।
বুধবারই বর্ষা ঢুকেছে মুম্বইয়ে। আর প্রথম দিন প্রবল বর্ষণে কার্যত ভেসে গিয়েছে গোটা শহর। রাস্তাঘাট থেকে রেলের ট্র্যাক — জমা জলের হাত থেকে বাদ পড়েনি কিছু। বিভিন্ন ছবিতে দেখা যায় মানুষের দুর্দশার ছবি। হাঁটু পর্যন্ত জলে কোনওমতে বাইক নিয়ে চলেছেন শহরবাসী, এমন দৃশ্যেরও দেখা মেলে। শহরতলির ট্রেন চলাচল এর জেরে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আবহাওয়া দপ্তর মুম্বইয়ের জন্য ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করে। আশপাশের থানে, পালঘর, রায়গড়েও ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে। রাস্তায় জমা জলের কারণে ট্র্যাফিক পুলিশ চারটি সাবওয়ে বন্ধ করে দেয়। অনেক চালককে গাড়ি ছেড়ে হেঁটে বাড়ি ফিরতে হয় পুলিশি সতর্কতায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top