ভুয়ো খবর ছড়াল ছোটা রাজনের মৃত্যু নিয়ে, আপাতত চিকিৎসাধীন আন্ডারওয়ার্ল্ডের এই ডন

CHOTA-RAJAN.jpg

Onlooker desk: তিনি মারা গিয়েছেন বলে খবর রটেছিল। পরে দিল্লির এইমস-এর তরফে জানানো হলো, সেখানে চিকিৎসাধীন আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন রাজেন্দ্র সদাশিব নিকালজে ওরফে ছোটা রাজন জীবিত আছেন। তাঁর কোভিড হয়েছে। এই সূত্রে শুক্রবার গ্যাংস্টারকে ঘিরে খানিক বিভ্রান্তি ছড়ায়।
২০১৫-য় ইন্দোনেশিয়া থেকে প্রত্যর্পণের পর থেকে দিল্লির তিহার জেলে বন্দি ছোটা রাজন। গত সপ্তাহে তাঁর কোভিড ধরা পড়ে। তাঁকে দিল্লির এইমস-এ ভর্তি করা হয়। অসুস্থতার কারণে গত সপ্তাহে দিল্লির একটি সেশনস কোর্টে হাজিরাও দিতে পারেননি বছর ৬১-র এই গ্যাংস্টার। তিহার জেলেই বন্দি ছিলেন গ্যাংস্টার থেকে রাজনীতিক হয়ে ওঠা মহম্মদ সাহাবুদ্দিন। সপ্তাহ খানেক আগে মারা যান তিনি।

১৯৮৪ থেকে দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে কাজ করেছেন রাজন। পরে ডনের অন্যতম সহকারী হয়ে ওঠেন। ইন্টারপোলের জারি করা রেড কর্নার নোটিসে বালি থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তাঁকে। ২০১৫-য় তাঁকে ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হয়। ৭০টিরও বেশি মামলায় ওয়ান্টেড এই গ্যাংস্টারকে ২০১১-য় সাংবাদিক জ্যোতির্ময় দে-কে হত্যার অপরাধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়।
২০১২-য় মুম্বইয়ের হোটেল মালিক বিআর শেঠিকে হত্যায় নাম জড়ায় রাজনের। মুম্বই পুলিশের দাবি, রাজনের নির্দেশে তাঁর দলের শার্প শ্যুটার কালিয়া শেঠিকে মেরেছিল। সেই ঘটনায় ২০১৯-এ গ্যাংস্টারের আট বছরের জেল এবং ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা হয়। এ বছর জানুয়ারিতেও একটি তোলাবাজির ঘটনায় দু’বছরের কারাদণ্ড হয় ছোটা রাজনের। তোলাবাজি, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র, খুন এবং খুনের চেষ্টার অভিযোগে বহু মামলায় দোষী সাব্যস্ত হন তিনি। তবে ১৯৯৩-এর মুম্বই বোমা বিস্ফোরণ মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত হানিফ কাদাওয়ালার হত্যায় রাজন ও তাঁর এক সঙ্গীকে বেকসুর বলে জানায় মুম্বইয়ের স্পেশ্যাল সিবিআই কোর্ট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top