৯-এর বালিকাকে ধর্ষণ-খুন দিল্লিতে, জোর করে দেহ সৎকার, ধৃত পুরোহিত

Nainital-rape-murder.jpg

Onlooker desk: ন’বছরের এক বালিকাকে ধর্ষণ-খুনের (rape and murder) পর জোর করে দেহ সৎকারের অভিযোগ উঠল দিল্লিতে (Delhi)। এই ঘটনায় পুলিশ এক পুরোহিত-সহ চারজনকে আটক করেছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। বিচারের দাবিতে এলাকায় বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।
দিল্লি (Delhi) ক্যান্টমেন্ট এলাকায় নাঙ্গাল গ্রামে বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকত মেয়েটি। হতদরিদ্র পরিবারটির বাস শ্মশানের কাছে। রবিবার সন্ধ্যায় শ্মশানে কুলার থেকে জল আনতে গিয়েছিল নিহত বালিকা। কিন্তু অনেকক্ষণ কেটে গেলেও ফেরেনি।
সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ মেয়েটির মাকে ডেকে সন্তানের দেহ পড়ে থাকতে দেখায় কয়েকজন। শ্মশানের পুরোহিত রাধেশ্যামের সঙ্গে পরিচয় ছিল তাদের।
অভিযোগ, স্থানীয় ওই বাসিন্দারা মেয়েটির মাকে জানায়, কুলার থেকে জল নেওয়ার সময়ে তড়িদাহত হয়েছে সে। তা থেকেই মৃত্যু।
পাশাপাশি পুলিশে অভিযোগ জানানো নিয়েও ভয় দেখানো হয়। তারা বলে, অভিযোগ জানালেই দেহে ময়না-তদন্ত হবে। সেখানে মেয়ের শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ চুরি করে নেওয়া হবে। তার চেয়ে বরং দেহটি সৎকার করে দেওয়াই ভালো।
এর বিনিময়ে মেয়েটির পরিবারকে কিছু অর্থও তারা দেয় বলে স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের দাবি।
প্রাথমিক ভাবে ওই ব্যক্তিদের কথা মেনে নেন মেয়েটির বাবা-মা। কিন্তু পরে তাঁদের সন্দেহ হয়। তাঁরা আশপাশের লোকেদের বিষয়টি জানান। পুরোনো নাঙ্গাল গ্রামের শ’দুয়েক বাসিন্দা শ্মশানে জড়ো হয়ে যান। পুলিশে খবর দেওয়া হয়।
দক্ষিণ-পশ্চিম জেলা পুলিশের সিনিয়র অফিসার প্রচাপ সিং জানান, রবিবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ তাঁদের কাছে একটি ফোন আসে। এলাকায় তদন্তে যায় পুলিশ। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শিশুদের যৌন নিগ্রহ ও সংরক্ষিত শ্রেণির উপরে অপরাধের ধারা আনা হয়েছে।

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top