পুরুষ তো পুরুষই। একজনকে ছেড়ে অন্যজনকে বিয়ে করলে জীবন সুখের হয় না — নুসরাতকে বার্তা তসলিমার

TASLIMA-AND-NUSRAT.jpg

কলকাতা: নানা সময়ে তাঁর কলমে পুরুষের বিরুদ্ধে নানা প্রসঙ্গ উঠে এসেছে। এ বার অভিনেত্রী-সাংসদ নুসরাত জাহানকে উদ্দেশ করে লেখা একটি ফেসবুক পোস্টেও তেমনই বার্তা দিলেন তসলিমা নাসরিন। লিখলেন — একজনকে ত্যাগ করে আর একজনকে বিয়ে করলে খুব যে সুখময় হয়ে ওঠে জীবন তা তো নয়!
গত ক’দিন ধরে শিরোনামে আছেন নুসরাত। স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক বেশ ক’মাস যাবৎ ভালো নয়। ছ’মাস হলো আলাদা আছেন তাঁরা। মাঝে বিবাহবিচ্ছেদ সংক্রান্ত খবর শোনা গেলেও তা ঠিক ছিল না। এরই মধ্যে গুঞ্জন, তারকা-সাংসদ মা হতে চলেছেন। অভিনেতা যশ দাশগুপ্তর সঙ্গে নুসরাতের ঘনিষ্ঠতা এখন সর্জনবিদিত। নিখিল সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ওই সন্তানের পিতা তিনি নন। কারণ দীর্ঘদিন তিনি ও নুসরাত আলাদা রয়েছেন। নুসরাত নিজে এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি। বরং ইনস্টাগ্রামে কখনও — ‘তুমি নিজের মতো করে ফুঠে উঠবে’, ‘আমি চাই না তুমি এসো’ গোছের পোস্ট করে রহস্য, জল্পনা বাড়াচ্ছেন। এ সবের মধ্যেই তসলিমার পোস্ট।

লেখিকার ফেসবুক পোস্ট

নাতিদীর্ঘ সেই ফেসবুক বার্তায় সাহিত্যিক লিখেছেন — নিখিল নুসরাতের বিয়ের খবরে তিনি খুবই খুশি হয়েছিলেন। যেমনটা সৃজিত মিথিলার বিয়ের খবরে হয়েছিলেন। ধর্মের বেড়া টপকে এ ধরনের আত্মীয়তাই হিংসা, হানাহানি থেকে একদিন মুক্তি এনে দেবে বলে স্বপ্ন বুনেছেন লেখায়। কিন্তু তার পরেই আসছে নিখিল-নুসরাতের সম্পর্কে চিড় ধরার প্রসঙ্গ।
তসলিমা জানিয়েছেন, সম্প্রতি ব্রাত্য বসুর একটি ছবিতে নুসরাতকে দেখে তাঁকে অনেকটা হলিউডের দাপুটে অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির মতো মনে হয়েছে। অভিনয়ও সাবলীল লেগেছে। এমন একজন ‘স্বনির্ভর’ মানুষের সন্তানের অভিভাবক হিসাবে পুরুষের মুখাপেক্ষী হওয়ার প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছেন তসলিমা।
তাঁর আক্ষরিক বার্তা — আসলে নিখিল এবং যশের মধ্যে কী এমন আর পার্থক্য! পুরুষ তো শেষ পর্যন্ত পুরুষই। একজনকে ত্যাগ করে …
বস্তুত, এক সম্পর্ক থেকে অন্য সম্পর্কে জড়িয়ে বিয়ে করলে সেই ‘রেসের’ শেষ হবে না বলে মনে করেছেন তসলিমা। তাঁর পোস্টের শেষ লাইন — স্বাধীনচেতা নারীর কাঙ্ক্ষিত পুরুষ কল্পনায় থাকে, বাস্তবে নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top