মাতৃত্বাকালীন পোশাক নিলামে তুলবেন অনুষ্কা, অর্থ যাবে মায়েদের স্বাস্থ্যখাতে

pregnant-anushka-sharma.jpg

Onlooker desk: মাতৃত্বকালীন জামাকাপড় নিলামে তুলছেন অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মা। এই নিলাম থেকে প্রাপ্ত অর্থ হবু মায়েদের স্বাস্থ্যখাতে ব্যয় হবে। এবং আড়াই লক্ষ লিটার জল সাশ্রয়েও ব্যবহৃত হবে। এ ভাবে ‘ফ্যাশন সিস্টেমে’ একটি ‘চক্রাকার অর্থনীতি’ শুরু হবে বলে অনুষ্কার দাবি।
প্রসঙ্গত, এ বছরের গোড়ায় অনুষ্কা ও তাঁর স্বামী বিরাটের কন্যা ভমিকার জন্ম হয়েছে।
সংবাদমাধ্যমে অনুষ্কা বলেন, ‘মানুষের প্রতি সদয় হতে খুব বেশি কিছু লাগে না। সার্কুলার ফ্যাশন সিস্টেমে জামাকাপড় ফিরিয়ে দেওয়া যায়। সেগুলোই ফের কেনা হলে পরিবেশের উপরেও তার ইতিবাচক প্রভাব পড়ে। প্রেগন্যান্সির সময়ে আমি এটা অনেক ভেবেছি। আশা করি, এই ইকোসিস্টেমকে একসঙ্গে শুরু করতে পারব।’
কিন্তু এর সঙ্গে জল সংরক্ষণের সম্পর্ক কোথায়?
উদাহরণ দিয়ে অনুষ্কা বলেন, ‘ধরা যাক, শহরের এক শতাংশ গর্ভবতী মহিলা এ রকম ব্যবহৃত পোশাক কিনলেন। নতুন জামা কিনলেন না। তা হলে প্রতি বছর কত জল সংরক্ষণ করা যাবে? যতটা কোনও ব্যক্তি ২০০ বছরে পান করেন। এ ভাবে সকলের একটা ক্ষুদ্র পদক্ষেপ সত্যিকার বদল আনতে পারবে।’
প্রসঙ্গত, বিরাট ও অনুষ্কা ভমিকার ব্যাপারে গোপনীয়তা রক্ষায় যত্নশীল। তার জন্মের পরেই সন্তানের ছবি ছাপার ব্যাপারে সংবাদমাধ্যমকে সাচেতন হতে বলেন তাঁরা।
সম্প্রতি বিরাট কোহলি এ ব্যাপারে একটি ইনস্টাগ্রাম পোস্ট দিয়েছেন। সেখানে জানান, তাঁরা চান, সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যাপারে ভমিকা নিজেই সিদ্ধান্ত নিক। কিন্তু যতদিন সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর্যায়ে না-যাচ্ছে, ততদিন তাকে সর্বসমক্ষে আনতে রাজি নন তাঁরা।
এক ভক্তের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান বিরাট। ওই ভক্ত লিখেছিলেন — ভমিকা মানে কী? ও কেমন আছে? আমরা কি ওর এক ঝলক দেখতে পারি?
জবাব দেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক। তিনি লেখেন — ভমিকা দেবী দুর্গার আর এক নাম। তবে না। ভমিকা আগে বুঝুক সোশ্যাল মিডিয়া ব্যাপারটা কী। নিজে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জায়গায় আসুক। তার আগে ওকে আমরা সোশ্যাল মিডিয়ায় আনব না। দম্পতি হিসাবে আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সাদাম্পটনে বিশ্ব ক্রিকেটের টেস্ট ফাইনাল হয়েছে। সেখানে বিরাটের নেতৃত্বে খেলে ভারতীয় দল। নিউ জিল্যান্ডের কাছে পরাজিত হয়েছে তারা। ট্রফি নিয়ে গিয়েছে নিউ জিল্যান্ড। তার পরে বিরাটের অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন কেউ কেউ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top