দ্বিতীয় ঢেউ কিন্তু যায়নি, রাজ্যগুলিকে কড়া বার্তায় কী জানাল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

IMG-20210531-WA0018.jpg

Onlooker desk: কোভিড-বিধি মেনে চলার উপরে জোর দিয়ে রাজ্যগুলিকে কড়া নির্দেশিকা পাঠাল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকেও পাঠানো হয়েছে এই নির্দেশিকা। যে রকম নির্বিচারে কোভিড-বিধি লঙ্ঘন করা হচ্ছে, তা নিয়ে সতর্ক করা হয়েছে। পজিটিভিটি রেট কমার সঙ্গে সঙ্গে যে আত্মতুষ্টি ও গা-ছাড়া ভাব দেখা দিয়েছে, যে ভাবেই হোক তা থেকে বেরোতে হবে বলে উল্লেখ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।
কোথাও কোভিড-বিধিতে শৈথিল্য দেখা দিলে সংশ্লিষ্ট অফিসারদের দায়ী করার কথাও বলা হয়েছে নির্দেশিকায়।
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় ভাল্লা ওই চিঠি পাঠিয়েছেন। অত্যন্ত কড়া ব্যবস্থার কথা লিখেছেন তিনি। বলা হয়েছে — কোনও ভবন বা বাজার বা অফিস বা ক্যাম্পাস বা যেখানেই কোভিড-বিধির লঙ্ঘিত হবে, সেখানে কড়াকড়ি চালু করা হবে। এবং সে জন্য দায়ী থাকবেন সংশ্লিষ্ট ওই এলাকার দায়িত্বপ্রাপ্ত লোকজন। এ সংক্রান্ত আইন মেনে তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নেওয়া হবে।
বুধবার গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩৮ হাজার ৭৯২টি নতুন সংক্রমণের হদিস মিলেছে। মারা গিয়েছেন ৬২৪ জন।
কিন্তু বিধি মানায় আমজনতার অনীহায় লাগাম পরানো যাচ্ছে না। নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, গণ-পরিবহণ থেকে শৈল শহর, নানা জায়গায় কোভিড-বিধি শিকেয় তোলা হচ্ছে। মন্ত্রক লিখেছে — দূরত্ববিধির তোয়াক্কা না করে বাজারগুলিতেও বিপুল ভিড় হচ্ছে।
অথচ বেশ কিছু রাজ্যে আর-ফ্যাক্টর (যে হারে সংক্রমণ ছড়ায়) এখনও যথেষ্ট বেশি। নির্দেশিকায় লেখা হয়েছে — এই হার ১-এর বেশি হলে বুঝতে হবে কোভিড দ্রুত ছড়াচ্ছে। অত্যন্ত জোর দিয়ে জানানো হচ্ছে যে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ এখনও যায়নি। টিকাকরণ চলছে। কিন্তু এখনই আত্মতুষ্টি ও গা-ছাড়া ভাব দেখিয়ে কোভিড-বিধি না-মানার সময় আসেনি।
এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ‘দাওয়াই ভি কড়াই ভি’ নীতির উল্লেখ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। একই সঙ্গে টেস্টিংয়ে জোর দেওয়া হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মঙ্গলবারই শৈল শহর ও বাজারগুলিতে ভিড় নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। উত্তর-পূর্বের আটটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। যে ভাবে মানুষ পর্যটন স্থলগুলিতে ভিড় করছেন, তা নিয়ে ঘোরতর উদ্বেগ উঠে আসে মোদীর কথায়। তিনি বলেন, ‘অনেকেই বলছেন, তৃতীয় ঢেউ আসার আগে একটু আনন্দ করে নেওয়া যাক। কিন্তু মানুষকে বুঝতে হবে যে তৃতীয় ঢেউ নিজে থেকে চলে আসবে না। আমরাই এ ভাবে তাকে আহ্বান জানাব।’
সম্প্রতি মুসৌরি, নৈনিতাল-সহ বেশ কিছু জায়গায় পর্যটকদের গাদাগাদি ভিড় দেখা যায়। দূরত্ববিধি তো দূর। কারও মুখে মাস্কেরও বালাই ছিল না ভাইরাল হওয়া ওই সব ছবিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top