উদ্বেগ বাড়িয়ে ১০০-২০০-৩০০ শতাংশ হারে সংক্রমণ বাড়ছে উত্তর পূর্ব ভারতে

coronavirus.jpg

Onlooker desk: দেশে করোনা নিয়ে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে উত্তর-পূর্ব ভারতের (North East India) একাধিক জেলা। পরিস্থিতি এমনই যে কোথাও কোথাও ৩২৫ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে সংক্রমণের হার (corona infection)।
গত চার সপ্তাহে মণিপুরের চান্দেল জেলায় এই হারে বেড়েছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৮ জুন যেখানে মাত্র ৮ জন আক্রান্ত ছিল, সে জায়গায় ২৫ জুলাই সংখ্যাটা পৌঁছেছে ৩৪-এ। আপাত ভাবে সংখ্যাগুলো কম মনে হলেও বৃদ্ধির হার ৩২৫ শতাংশ। যা যথেষ্ট উদ্বেগজনক।
স্বাস্থ্য মন্ত্রকের একটি রিপোর্টে জানা গিয়েছে, দেশে ২২টি জেলায় করোনার সংক্রমণ (corona infection) উদ্বেগজনক অবস্থায় রয়েছে। তার মধ্যে ১২টিই মেঘালয়, মণিপুর, অরুণাচল প্রদেশ, ত্রিপুরা এবং অসমের।
মেঘালয়ের পশ্চিম গারো পর্বতে কোভিড-১৯ সংক্রমণের (corona infection) সংখ্যা ১১০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। অরুণাচলের পশ্চিম সিয়াং-এ সংক্রমণ বেড়েছে ৩০০ গুণ। মণিপুরের নোনিতে ২৬৬ শতাংশ। নতুন আক্রান্তের এই বিপুল হারে বৃদ্ধি ব্যাপক উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইম্ফলে (পূর্ব) গত এক মাসে সংক্রমণ ১১৯.৭ শতাংশ বেড়েছে।

আরও পড়ুন: আগামী মাসেই শুরু হবে শিশুদের টিকাকরণ, জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস (এইমস)-এর অধিকর্তা ডঃ রণদীপ গুলেরিয়া আগেই উত্তর-পূর্ব ভারত (North East India) সম্পর্কে সংবাদমাধ্যমে সতর্কতার কথা জানিয়েছিলেন। একটি সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘উত্তর-পূর্বের (North East India) মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এমনিতেই কম। বিধিনিষেধ উঠে যাওয়ায় পর্যটনের সূত্রে সংক্রমণ ওই এলাকাগুলিতে পৌঁছেছে।
এ দিকে, দেশের অন্য যে জেলাগুলি নিয়ে উদ্বেগ, তার মধ্যে সাতটি কেরালার (Kerala)। তিনটি মহারাষ্ট্রের (Maharashtra)।
কেরালার কোট্টায়ামে গত চার সপ্তাহে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ৬৪ শতাংশ বেড়েছে। এই জেলায় বর্তমানে ৮৪৯ জন সক্রিয় করোনা রোগী রয়েছেন।
মলপ্পুরমে ২,২৭০টি অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে। চার সপ্তাহ বৃদ্ধি ৫৯ শতাংশ। তার পরে রয়েছে এর্নাকুলাম। সেখানে এই সময়ের মধ্যে সংক্রমণ (corona infection) ৪৬.৫ শতাংশ বেড়েছে। ত্রিশূরে ৪৫.৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে করোনার সংক্রমণ। মোট আক্রান্তের নিরিখে সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় রয়েছে মলপ্পুরম। এ ছাড়া ওয়ানাড, পাঠানামথিত্তা এবং আলাপ্পুঝাতেও বাড়ছে নতুন সংক্রমণ। তাই এই জেলাগুলির উপরে নজর রাখা হচ্ছে বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে।
মহারাষ্ট্রে শোলাপুরের অবস্থা বেশ খারাপ। নতুন সংক্রমণ (corona infection) ২৮ শতাংশ বেড়েছে। এ ছাড়া বীদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। বীদে নতুন সংক্রমণ বেড়েছে ৩৩ শতাংশ।
কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, দেশের আরও ৫৪টি জেলায় পজিটিভিটির হার ১০ শতাংশের বেশি। গত ২৬ জুলাই শেষ হওয়া সপ্তাহ পর্যন্ত এই হিসাব কষা হয়েছে।

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top