‘অন্ধ নেতারা মানুষের দুর্দশায় অভ্যস্ত’, কোভিডে মৃত ছাত্রের স্মরণে বললেন অধ্যক্ষ

DELHI-STUDENT.jpg

Onlooker desk: কোভিডে মারা গেলেন দিল্লির সেন্ট স্টিফেন’স কলেজের প্রথম বর্ষের এক ছাত্র। রাজস্থানের কোটায় একটি বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় বছর ১৮-র সত্যম ঝা-র।
কলেজের অধ্যক্ষ জন ভার্ঘিস ছাত্রের স্মরণে লিখেছেন — অন্ধ নেতারা সাধারণ মানুষের দুর্দশা ও মৃত্যুতে অভ্যস্ত। আমরা কি বিপজ্জনক ভাবে একটা নিষ্ঠুর-নির্দয় জাতিতে পরিণত হচ্ছি? ক্ষমতা ও গুরুত্বের দাবি কি প্রিয় মানুষের মৃত্যুর চেয়ে বেশি জরুরি? কখনই নয়।
পারিবারিক কাজে এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে দিল্লি থেকে কোটা যান ইতিহাস প্রথম বর্ষের ছাত্র সত্যম। তারপরে অলনাইল ক্লাস করছিলেন তিনি। কোটাতেই অসুস্থ হয়ে পড়েন বছর ১৮-র তরতাজা তরুণ। গত এক সপ্তাহ ভেন্টিলেটরে রাথা হয় সত্যমকে। তাঁর ও তাঁর মা-বাবা, পরিবার, পরিজনের স্বপ্ন পূরণের আগেই ভেঙে গেল। এই পরিস্থিতিতে তাঁদের পাশে দাঁড়িয়ে ছাত্রের আত্মার শান্তি কামনা করেছেন অধ্যক্ষ।
মেধাবী ওই ছাত্র অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিলেন সহপাঠীদের মধ্যে। সম্প্রতি সেন্ট স্টিফেন’সের গান্ধী আম্বেদকর স্টাডি সার্কলের কাউন্সিল সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হন। সার্কলের তরফে তাঁকে ‘ব্যতিক্রমী, মেধাবী, বিনয়ী’ বলে চিহ্নিত করা হয়। টুইটারে তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়েছে এসএফআই।
৪৪ দিনের মধ্যে আজ, শুক্রবার ২৪ ঘণ্টায় দেশে একদিনে করোনার সংক্রমণ সবচেয়ে কম — ১ লক্ষ ৮৬ হাজার। দীর্ঘ লকডাউনের জেরে দিল্লির পরিস্থিতিও অনেকখানি উন্নত। দৈনিক সংক্রমণের পাশাপাশি পজিটিভিটি রেটও অনেকখানি কমেছে। কিন্তু সেখানকারই প্রথম সারির এক মেধাবী ছাত্রের মৃত্যু আরও একবার দেখিয়ে দিল কোভিডের মর্মান্তিক দিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top