হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী সুরেখা সিক্রি

WhatsApp-Image-2021-07-16-at-11.52.08-AM.jpeg

Onlooker desk: হৃদরোগে মৃত্যু হল প্রবীণ অভিনেত্রী সুরেখা সিক্রির (Surekha Sikri)। জাতীয় পুরস্কারজয়ী সুরেখার বয়স বয়েছিল ৭৫। শুক্রবার সকালে তাঁর এজেন্ট এ কথা জানিয়েছেন।
দ্বিতীয় বার ব্রেন স্ট্রোকের পর নানা শারীরিক জটিলতা দেখা দিয়েছিল তাঁর। সে সব নিয়ে ভুগছিলেন। বিবৃতি দিয়ে ওই এজেন্ট জানান, মৃত্যুর সময়ে পরিবার ও দেখভাল করার মানুষরা তাঁকে ঘিরে ছিলেন।
এজেন্ট বিবেক সিধওয়ানি সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘তিন বার জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী সুরেখা সিক্রি প্রয়াত হলেন। ৭৫ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে আজ সকালে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। দ্বিতীয় ব্রেন স্ট্রোকের জেরে শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি।’
২০১৮-এ ব্রেন স্ট্রোক হয় সুরেখার। পরের বছর সেপ্টেম্বরে এ কথা জানান প্রবীণ অভিনেত্রী। বলেছিলেন, পুরোপুরি সুস্থ হয়ে কাজে ফিরবেন।
২০১৯-এ একটি সংবাদমাধ্যমে এক সাক্ষাৎকার দেন সুরেখা। বাধাই হো ছবির জন্য সে বার জাতীয় পুরস্কার (National Award) পান তিনি। সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘১০ মাস আগে একবার ব্রেন স্ট্রোক হল। সেই থেকে চিকিৎসা চলছে। ধীরে ধীরে সেরে উঠছি। মহাবালেশ্বরে একটি ছবির শুটিংয়ের সময় বাথরুমে পড়ে যাই। মাথায় জোরে আঘাত লাগে। অসুস্থতার কারণে কাজ করতে পারছি না। চিকিৎসকরা বলছেন, তাড়াতাড়িই সেরে উঠব।’
২০২০-তে ফের একবার ব্রেন স্ট্রোক হয় প্রবীণ অভিনেত্রীর। সে সময়ে তাঁর আর্থিক সঙ্কটও দেখা দেয় বলে কিছু কিছু সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। যদিও তাঁর ম্যানেজার পরে এ কথা অস্বীকার করেন। জানান, সুরেখার ছেলে মায়ের পাশে রয়েছেন। তা ছাড়া, অভিনেত্রীর নিজেরও অর্থের অভাব নেই।
২০১৯ সালে বাধাই হো ছবির জন্য বেস্ট সাপোর্টিং অ্যাক্ট্রেস হিসাবে জাতীয় পুরস্কার পান তিনি। তার আগে দু’বার জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন সুরেখা। প্রথম বার ১৯৮৮-তে। তামস ছবির জন্য। তার সাত বছর বাদে ১৯৯৫-এ মাম্মো-র জন্য। সঙ্গীত নাটক অ্যাকাডেমি পুরস্কারও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামা থেকে স্নাতক করেন তিনি। ১৯৮৯ সালে সঙ্গীত নাটক অ্যাকাডেমি পুরস্কার পান।
ছবির পাশাপাশি টেলিভিশনেও তাঁর বহু কাজ মানুষের মনে দাগ কেটেছে। বিশেষত বালিকা বধূ সিরিয়ালে তাঁর অভিনয় সুরেখাকে মানুষের ঘরে ঘরে আরও বেশি করে পৌঁছে দেয়। সেখানে কড়া দিদিমার চরিত্রে ছিলেন তিনি।
বলিউডের বেশ কয়েকটি অন্য ধারার প্রশংসিত ছবিতে কাজ করেন সুরেখা। যেমন জুবেইদা, মিস্টার অ্যান্ড মিসেস আইয়ার, রেনকোট ইত্যাদি। ছোট হলেও চরিত্রগুলিতে তাঁর বলিষ্ঠ অভিনয় নজর কাড়ে সকলের।
নেটফ্লিক্সের একটি অ্যান্থলজিতে শেষ দেখা গিয়েছিল তাঁকে। ঘোস্ট স্টোরিজে জোয়া আখতার পরিচালিত গল্পে ছিলেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top