বিজেপির যোগ নেই, প্রমাণ কী? ভুয়ো টিকা নিয়ে পাল্টা প্রশ্ন মমতার

mamata-banerjee1.jpg

কলকাতা: ভুয়ো টিকাকরণ নিয়ে মঙ্গলবারই রাজ্যের রিপোর্ট চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র।
বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন তুললেন, ভুয়ো টিকাকরণের সঙ্গে বিজেপির যোগ নেই তো? সেই সঙ্গে তিনি জানান, রাজ্য সরকার এ সবে জড়িত নয়।
মমতার অভিযোগ, এ সব পশ্চিমবঙ্গকে বদনাম করার ছক। তাই কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ছোট জিনিসকে বড় করে দেখাতে চায়। এ জন্য কেন্দ্রীয় সংস্থাকেও ব্যবহার করছে তারা।
মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজ্যের মুখ্যসচিবকে একটি চিঠি পাঠান। শুভেন্দু অধিকারী ভুয়ো টিকাকরণ নিয়ে কেন্দ্রের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন। তার পরেই স্বাস্থ্য সচিবের চিঠি। সেখানে তিনি লেখেন, এই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে দেখা হোক। বৃহস্পতিবারের মধ্যে এ সংক্রান্ত রিপোর্টও চেয়েছেন স্বাস্থ্য সচিব।
বুধবার মমতা বলেন, ‘ভুয়ো টিকাকরণ কেন্দ্র একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। পশ্চিমবঙ্গ সরকার এর সঙ্গে কোনও ভাবেই জড়িত নয়। অভিযোগ পাওয়া মাত্র আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি।’
ভুয়ো টিকাকরণের পান্ডা দেবাঞ্জন দেবকে গ্রেপ্তার করা হয় গত বুধবার। সব মিলিয়ে এই ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিবের চিঠির উল্লেখ করেননি মমতা। তবে বলেন, ‘গুজরাটে বিজেপির পার্টি অফিসে টিকা দেওয়া হলো। স্বাস্থ্য মন্ত্রক সে ক্ষেত্রে ক’টা চিঠি পাঠিয়েছে? কতগুলি তদন্ত হয়েছে? একটি রাজ্য যখন ভালো কাজ করছে, তখন ওরা তাদের বিরক্ত করে চলেছে।’
এই সূত্রেই ভুয়ো টিকাকরণের সঙ্গে বিজেপি-যোগের প্রসঙ্গ টানেন তৃণমূলনেত্রী। তিনি বলেন, ‘এ সবের পিছনে যে বিজেপি নেই, তার কী প্রমাণ আছে? বিজেপি তো তৃণমূল নেতাদের ছবি রেখে দেয়।’ প্রসঙ্গত, তৃণমূলের কয়েকজন নেতা-মন্ত্রীর সঙ্গে ধৃত দেবাঞ্জনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে বিজেপি।
মমতার দাবি, ছবি দেখে কোনও সিদ্ধান্তে আসা যায় না। তা ছাড়া, ছবি তো বানানোও। যা পরে ‘ব্যবসার স্বার্থে’ ব্যবহার করা হতে পারে। একই ভাবে দেবাঞ্জনের সঙ্গে বিজেপি বা অন্য দলের নেতাদের ছবি থাকতে পারে। পরে যা বেরিয়ে আসবে। তৃণমূলনেত্রী বলেন, ‘এ ধরনের কাজের পিছনে যে বা যারাই থাক। তারা যে দলেরই হোক। কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
ভুয়ো টিকা দেওয়া সন্ত্রাসবাদের থেকেও খারাপ বলে মন্তব্য করেন মমতা। তিনি জানান, টিকার নামে ওই শিবিরে অ্যান্টি-বায়োটিক দেওয়া হয়েছিল। স্বাস্থ্য দপ্তর সে দিনের ‘টিকা’ গ্রহীতাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছে। চিকিৎসকদের অনুমতি পেলে তাঁদের টিকার ব্যবস্থাও করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top