পুলিশ পরিচয়ে বিপদের কথা বলে তৃণমূল নেতার ২০ হাজার টাকা হাতাল প্রতারক

Fraud-cheats-on-TMC-leader.jpg

থানায় অভিযোগ জানিয়ে বেরিয়ে আসছেন প্রতারিত তৃণমূল নেতা

বর্ধমান: পুলিশ আধিকারিক পরিচয় দিয়ে ফোন করে এক তৃণমূল নেতার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারকরা। প্রতারিত পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতারের তৃণমূল নেতা মহম্মদ হোসেন ওরফে বুলু মিঞা। বৃহস্পতিবার ঘটনার বিষয়ে ভাতার থানার অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। যদিও এদিন রাত পর্যন্ত অভিযুক্তদের হদিস পায়নি পুলিশ।
তৃণমূল নেতা মহম্মদ হোসেনের বাড়ি ভাতার থানার ওড়গ্রামে। তিনি ভাতার ব্লকের সাহেবগঞ্জ-২ অঞ্চল তৃণমূলের সভাপতি। থানায় দায়ের করা অভিযোগে তিনি জানিয়েছেন, এদিন সকাল পৌনে ১০টা নাগাদ একটি অচেনা নম্বর থেকে তাঁর মোবাইলে ফোন আসে। ওই ব্যক্তি নিজেকে ভাতার থানার মেজোবাবু পরিচয় দিয়ে প্রথমে এলাকার একটি ঝামেলার বিষয় নিয়ে কথা বলেন। মিনিট দশেক পরে ফের ফোন করে থানার ওই ১০ হাজার টাকা চান। টাকা চাওয়ার সময়ে জানান, জরুরি প্রয়োজন। তাই দ্রুত ফোন পে’র মাধ্যমে টাকাটা পাঠিয়ে দিতে। এমনটা শোনার পর তৃণমূল নেতা টাকার জোগাড় করতে বেরিয়ে যান। সেই সময়ে থানার মেজবাবুর ছেলে পরিচয় দিয়ে অন্য আর একজন অন্য একটা নম্বর থেকে ফোন করে ১০ হাজারের পরিবর্তে ২০ হাজার টাকা দেওয়ার কথা বলেন। মহম্মদ হোসেন বলেন, ‘আমি ভেবেছি থানার মেজবাবু কোনও কারণে হয়তো সমস্যায় পড়ে গিয়েছেন। তাই অবিশ্বাস করিনি। কিন্তু টাকা পাঠানোর পরে ফের আমার কাছে ফোন আসে। ওই ব্যক্তি জানান, সমস্যা মিটে গেছে তাই কিছুক্ষণের মধ্যে তিনি ওড়গ্রামে টাকা ফেরত দিতে আসছেন। আমি অনেক্ষণ ওড়গ্রামে অপেক্ষা করি। কিন্তু কেউ টাকা দিতে আসেনি।’ এর পরেই তাঁর সন্দেহ হয়। প্রতারিত হয়েছেন বুঝতে পেরে ওড়গ্রাম পুলিশ ফাঁড়িতে পৌঁছন তিনি। সেখানে পরিচিত এক পুলিশকর্মীকে ঘটনার কথা খুলে বলেন। এর পর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ফোন নম্বরের সূত্র ধরে পুলিশ প্রতারকদের খোঁজ চালাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top