বধূকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগে গ্রেপ্তার স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ি

WhatsApp-Image-2021-05-14-at-6.06.02-PM.jpeg

বর্ধমান: বধূকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগে গ্রেপ্তার হলেন স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ি। মৃতার নাম চম্পা মণ্ডল (২৭)। পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বরের থানার কাইগ্রামে তাঁর শ্বশুরবাড়ি। শুক্রবার ভোরে বাড়ি থেকে পুলিশ তাঁর স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়িকে গ্রেপ্তার করে। এদিনই ধৃতদের পেশ করা হয় কাটোয়া মহকুমা আদালতে। বিচারক বধূর স্বামী অক্ষয় মণ্ডলকে সাত দিন পুলিশ হেফাজত এবং শ্বশুর ও শাশুড়িকে বিচার বিভাগীয় হেফাজতে পাঠনোর নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার মন্তেশ্বর থানার কাইগ্রামের শ্বশুরবাড়িতেই চম্পা মণ্ডলের অগ্নিদগ্ধ হন। তারপর তাঁকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বুধবার ভোরে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। বধূর মৃত্যুর পরেই মন্তেশ্বরের ঘোড়াডাঙার বাসিন্দা তাঁর বাপের বাড়ির লোকজন মন্তেশ্বর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে জানানো হয়, আট বছর আগে চম্পার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাঁর উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাতে শুরু করেন। গত মঙ্গলবার দুপুরে তা চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছয়। এর পরেই গায়ে আগুন লাগিয়ে চম্পাকে পুড়িয়ে মেরে দেওয়া হয়। পুলিশ জানিয়েছে, স্বামী-সহ শ্বশুরবাড়ির সাত জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। তার ভিত্তিতে খুনের মামলা রুজু করে তিন জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি অভিযুক্তদের খোঁজ চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top