সহকর্মীর ছেলেকে মার, গ্রেপ্তার রেলের সহকারী স্টেশন মাস্টার

MEMARI.jpg

আক্রান্ত সহকর্মীর ছেলে। (ডানদিকে) অভিযুক্ত সহকারী স্টেশন মাস্টার — নিজস্ব চিত্র

বর্ধমান: মারধর করে সহকর্মীর ছেলের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার হলেন রেল স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের মেমারিতে। ধৃতের নাম রাহুল ঘোষ। তিনি হাওড়া-বর্ধমান মেইন শাখার মেমারি স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার। আক্রান্ত মণীশ শর্মা-র বাবা মনোজ শর্মা মেমারি স্টেশনেরই সিগন্যালিং বিভাগের আধিকারিক। সহকারী স্টেশন মাস্টারের এমন আচরণে নিন্দা করেছেন মেমারি স্টেশনের অন্য রেল কর্মীরাও।

মেমারি থানার কাছে রয়েছে রেল কোয়ার্টার। সেখানে পাশাপাশি কোয়ার্টারে পরিবার নিয়ে থাকেন রাহুল ও মনোজ। শুক্রবার রাত ১০টা নাগাদ রাহুল ঘোষ কোয়ার্টারে ফেরেন। সেই সময়ে তাঁর কোয়ার্টারের সামনে সহকর্মী মনোজ শর্মার  মোটরবাইকটি দাঁড় করানো ছিল। অভিযোগ, রাহুল লাথি মেরে বাইকটি ফেলে দেন। ওই সময়ে পাশেই বসে থাকা মনোজের ছেলে মণীশ তা দেখে প্রতিবাদ করেন। তিনি রাহুল ঘোষের কাছে বাইটি ফেলে দেওয়ার কারণ জানতে চান। সেই সময় অপ্রকৃতস্থ অবস্থায় রাহুল ঘর থেকে চেলা কাঠ বের করে এনে মণীশের মাথায় আঘাত করেন বলে অভিযোগ। মণীশ জানান, তাঁকে বাঁচাতে তাঁর দিদি ও বোন ছুটে এলে তাঁদেরও রাহুল ঘোষ চুলের মুঠি ধরে চড়-থাপ্পড় মারতে থাকেন। তা দেখে কোয়ার্টারে অন্য প্রতিবেশীরা বাধা দিতে গেলে তাঁরাও আক্রান্ত হন।

ঘটনায় রাতেই থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মণীশ। তার ভিত্তিতে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ শনিবার ভোরে কোয়ার্টার থেকে রাহুল ঘোষকে গ্রেপ্তার করে। অভিযুক্ত সহকারী স্টেশন মাস্টারকে শনিবার বর্ধমান আদালতে পেশ করা হয়। ভারপ্রাপ্ত সিজেএম ধৃতকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়ে সোমবার ফের আদালতে পেশের নির্দেশ দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top