১৫ মাসের শিশু কান্নাকাটি করায় বেধড়ক মার, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত প্রতিবেশী

Polish_20210714_020356982.jpg

বর্ধমান: ১৫ মাসের এক শিশু কাঁদতে কাঁদতে চলে গিয়েছিল প্রতিবেশীর বাড়িতে। অন্য বাড়ির ছেলে এ ভাবে বাড়িতে ঢুকে কান্নাকাটি করায় রাগে অগ্নিশর্মা হয়ে ওঠেন গৃহকর্তা। তার পরেই কাঁদতে থাকা ওই শিশুকে তিনি মারধর করেন বলে অভিযোগ। এ নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের হতেই সঞ্জিত সাউ নামে ওই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের মেমারি থানার কেন্না গ্রামের সায়েরপাড়ায়। মেমারি থানার পুলিশ সোমবার রাতে বাড়ি থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে। শিশুকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত প্রতিবেশীর কঠোর শাস্তির দাবি করেছেন সায়েরপাড়ার বাসিন্দারা।
পুলিশ জানিয়েছে, শিশুটির বাবা কর্মসূত্রে বাইরে থাকেন। শারীরিক অসুস্থতার কারণে শুক্রবার সকালে শিশুটি খুব কান্নাকাটি করছিল। হঠাৎই তার মায়ের নজর এড়িয়ে কান্নাকাটি করতে করতে প্রতিবেশী সঞ্জিত সাউয়ের বাড়িতে ঢুকে পড়ে। বাড়িতে ঢুকে শিশুটি কান্নাকাটি করায় সঞ্জিত প্রবল রেগে যান। শিশুটিকে প্রচণ্ড মারধর করে করেন তিনি। এমনকী তিনি শিশুটিকে লাথি পর্যন্ত মারেন বলে অভিযোগ। মারধর সহ্য করতে না পেরে শিশুটি আরও চিৎকার করে কাঁদতে শুরু করে। কান্নার আওয়াজ শুনে শিশুটির মা ওই প্রতিদবেশীর বাড়িটে দৌড়ে যান। তাঁকেও মারধর করে ছেলেকে নিয়ে চলে যেতে বলেন সঞ্জিত। হুমকি দেওয়া হয়, দ্রুত বাড়ি থেকে চলে না গেলে শিশুটিকে মেরে ফেলা হবে। মায়ের কোল থেকে শিশুটিকে কেড়ে নিয়ে ছুড়ে ফেলে দেওয়ার হুমকি পর্যন্ত দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এর পর ওই মহিলা তাঁর সন্তানকে নিয়ে স্থানীয় হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা করান। শনিবার তিনি ঘটনার কথা জানিয়ে মেমারি থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ সঞ্জিতকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ মঙ্গলবার ধৃতকে বর্ধমান আদালতে পেশ করে । তবে পুলিশ জামিনযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করায় সিজেএম ধৃতের জামিন মঞ্জুর করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top