রাতের অন্ধকারে গাড়ি থেকে ফেলে দেওয়া হল বিবস্ত্র তরুণীকে

RAPE1.jpg

রায়গঞ্জ: শনিবার রাত তখন ন’টা-সাড়ে ন’টা হবে। করোনার জেরে বিধিনিষেধের কারণে রায়গঞ্জের রাস্তায় লোকজন নেই বললেই চলে। হঠাৎই স্থানীয় বাসিন্দারা খেয়াল করেন, একটি লাল রঙের চলন্ত গাড়ি থেকে এক তরুণীকে রাস্তায় ফেলে দেওয়া হলো। কাছে গিয়ে তাঁরা দেখেন, মেয়েটি বিবস্ত্র। তাঁরাই তাঁর পোশাকের ব্যবস্থা করে খবর দেন পুলিশে।
তরুণীকে উদ্ধার করে ভর্তি করা হয় রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। দেবীনগর কালীবাড়ি সংলগ্ন বীরনগরের এই ঘটনায় পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, মাদক খাইয়ে ধর্ষণ করে ফেলে যাওয়া হয়েছে তরুণীকে। তবে এখনই এ ব্যাপারে নির্দিষ্ট ভাবে কিছু বোঝা যাচ্ছে না। আশপাশের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
এলাকাবাসী জানাচ্ছেন, প্রচণ্ড গতিতে আসা একটি গাড়ি হঠাৎই শ্লথ হয়ে যাওয়ায় শব্দ পাওয়া যায়। কেউ কেউ দেখেন, গাড়িটি মুহূর্তের জন্য থেমেই ফের হুশ করে বেরিয়ে যায়। অদূরে পড়ে ওই তরুণী।
তাঁদের দাবি, তরুণীর সঙ্গে একটি জামাকাপড় ভর্তি ব্যাগ ছিল। সেখান থেকেই পোশাক বের করে পরানো হয় তাঁকে। কিন্তু তাঁর হুঁশ ছিল না। হাসপাতালে ভর্তির সময়েও বেহুঁশ ছিলেন তিনি। আপাতত সেখানেই চিকিৎসাধীন ওই তরুণী। তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হলে ঘটনার জট খুলবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top