বাড়ির বাগানে সাধের বিদেশি পাতাবাহার গাছ চুরি, বিহিত চেয়ে পুলিশের দ্বারস্থ গাছপ্রেমী

garden-croton-theft.jpg

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায় বর্ধমান
সুযোগ পেলেই চোরেরা যে গৃহস্থের বাড়ির দরজার তালা ভেঙে সর্বস্ব লুটপাট করে নিয়ে পালাবে এ কথা কে বা আর না জানেন। তবে রাতের অন্ধকারে চোর এসে গাছপ্রেমীর সাধের বাগান থেকে বিদেশি পাতাবাহার গাছ চুরি করে নিয়ে পালাবে, এমনটা বোধ হয় অনেকেরই কল্পনার অতীত। কিন্তু বাস্তবে এমনটাই ঘটেছে শহর বর্ধমানের (Bardhaman) নতুনপল্লিতে। বাড়িতে থাকা অন্যান্য জিনিসের প্রতি নজর নেই চোরের। বেছে বেছে সাধের গাছগুলিই চুরি যাচ্ছে ওই এলাকার প্রবীণ বাসিন্দা অমর চক্রবর্তীর বাগান থেকে।
বেশ কিছু দিন ধরে বিষয়টি লক্ষ করার পর গাছ চুরির বিহিত চেয়ে বর্ধমান (Bardhaman) থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন অমরবাবু। এমনকী তদন্তে সাহায্যের জন্য তাঁর বাড়ির চারপাশে থাকা
সিসি ক্যামেরায় গাছ চোরেদের যে ছবি ধরা পড়েছে তাও তিনি পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন। এদিকে টাকা, পয়সা, সোনাদানা চুরির পাশাপাশি চোরেরা এখন বিদেশি পাতা বাহার
গাছও চুরি করতে শুরু করেছে জেনে স্তম্ভিত এলাকার বাসিন্দারা। এমন অভিযোগ আগে এসেছে বলে মনে করতে পারছেন না পুলিশ অফিসাররাও।
শহরের নতুনপল্লির বাসিন্দা অমর চক্রবর্তী অবসরপ্রাপ্ত প্রবীণ মানুষ। আগাগোড়াই নানা ধরনের গাছের প্রতি তাঁর প্রবল ঝোঁক। তাই নিজের বাড়িতে নামী দামি বিভিন্ন গাছ সংগ্রহ করে এনে বাগান সাজিয়েছেন। তার মধ্যে রয়েছে বিদেশি পাতাবাহার গাছগুলি। গাছের পাশাপাশি বাড়িতে পাখিও পুষেছেন। অমরবাবু বলেন, ‘অতিমারীতে জারি হওয়া বিধিনিষেধ মেনে আমি বাইরে খুব একটা যাই না। বড়িতে গাছপালা নিয়েই তিনি সময় কাটাই। কিন্তু গত এক বছর ধরে লক্ষ করছি বাগানের টবে থাকা বিদেশি নামী দামি গাছ চুরি হয়ে যাচ্ছে। কারা, কী ভাবে চুরি করছে তা জানার জন্য বাড়ির চারিদিকে সিসি ক্যামেরা লাগাই। তাতেই চুরির বিষয়টি স্পষ্ট হয়েছে।’
অমরবাবু জানান, সিসি ক্যামেরার ফুটেজে চোরেদের চেহারা ধরা পড়েছে। রাতের অন্ধকারে মুখ ঢাকা দিয়ে দু’জন তাঁর বাড়ির বাগানের গাছ চুরি করে নিয়ে পালাচ্ছে। এই ফুটেজ হাতে পাওয়ার পরেই গাছ চুরির বিহিত চেয়ে তিনি বর্ধমান (Bardhaman) থানার পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন। পুলিশ খুব তাড়াতাড়ি গাছ চোরদের পাকড়াও করবে, এমনটাই প্রত্যাশা গাছপ্রেমী অমর চক্রবর্তীর।
বর্ধমান (Bardhaman) শহরের এক বাসিন্দা জানান, পুলিশের এখন বড় জ্বালা হয়েছে। ছিঁচকে চোর থেকে হাই প্রোফাইল দুষ্কৃতীদের সামলানোর পাশাপাশি গাছ নিয়েও তদন্ত করতে হচ্ছে। মাস খানেক আগে বর্ধমানের মিউনিসিপ্যাল বয়েজ স্কুলে একটি শিরিষ গাছের রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সেখানকার প্রাথমিক বিভাগের প্রধান শিক্ষক। শিরিষ গাছের মৃত্যু রহস্যের জল অনেক দূর গড়ায়। এ বার গৃহস্থের বাড়ির বাগানে থাকা বিদেশি পাতা বাহার গাছ চুরির
তদন্তভার কাঁধে নিতে হল বর্ধমান থানার পুলিশকে।
বর্ধমান থানার এক অফিসার বলেন, ‘গাছ চুরির অভিযোগ জমা পড়েছে। তদন্ত শুরু হয়েছে। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top