গুলি চালিয়ে প্রতিবেশীকে ফাঁসাতে গিয়ে গ্রেপ্তার অভিযোগকারীই

WhatsApp-Image-2021-05-10-at-12.10.48-AM.jpeg

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: গুলি চালিয়ে প্রতিবেশীকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই জড়িয়ে গেলেন পুলিশের জালে। পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলীর মহাজনপট্টি পাটুলি গ্রামে গুলি চালানোর অভিযোগে পুলিশ অভিযোগকারী নিত্যানন্দ ঘোষকেই গ্রেপ্তার করেছে। পাটুলিতেই তাঁর বাড়ি। পুলিশের দাবি, ধৃতের কাছ থেকে এক রাউন্ড কার্তুজ-সহ একটি বন্দুক উদ্ধার হয়েছে। রবিবার তাঁকে কালনা মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক জেল হেফাজতে পাঠান।
পুলিশ জানিয়েছে, নিত্যানন্দ ঘোষ ও নিতাই ঘোষ প্রতিবেশী। পাঁচিলের গোড়ায় মাটি ফেলা নিয়ে গত ২৮ মার্চ দুই পরিবারের মধ্যে অশান্তি থেকে মারপিট শুরু হয়ে যায়। গুলিও চলে। গুলি লাগে অপূর্ব ঘোষ নামে স্থানীয় এক ব্যক্তির শরীরে। গুরুতর জখম অবস্থায় অপূর্বকে বিভিন্ন হাসপাতাল ঘুরে নিয়ে যাওয়া হয় কলকাতার এসএসকেএমে।
এই ঘটনার পর নিতাই ও তাঁর পরিবারের আটজনের বিরুদ্ধে পূর্বস্থলী থানায় মারধর, গুলি চালানোর অভিযোগ দায়ের করেন নিত্যানন্দ। তদন্তে নেমে পুলিশ ছ’জনকে গ্রেপ্তার করলেও খটকা থেকেই গিয়েছিল। সে কারণে পুলিশ তদন্ত জারি রাখে। ঘটনাস্থলে একটি রান্নাঘরের দেওয়ালে ফুটো দেখে অভিযোগকারীর উপর সন্দেহ তীব্র হয় তদন্তকারীদের।
গুলিবিদ্ধ ব্যক্তি সুস্থ হওয়ার পর সাক্ষীদের পাশাপাশি অপূর্ব ও নিত্যানন্দকে একসঙ্গে বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চালান তদন্তকারী অফিসার। জেরায় ভেঙে পড়ে নিত্যানন্দ গুলি চালানোর কথা কবুল করেন। শনিবার রাতেই তাঁকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ধ্রুব দাস বলেন, ‘পূর্বস্থলীর গুলি চালানোর ঘটনায় অভিযোগকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁর কাছ থেকেই উদ্ধার হয়েছে এক রাউন্ড গুলি-সহ একটি বন্দুক।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top