অজ্ঞাতপরিচয় মহিলার আধপোড়া দেহ উদ্ধার বর্ধমানে

Polish_20210702_004000530.jpg

বর্ধমান: দামোদরের বাঁধ লাগোয়া ঝোপ জঙ্গল ঘেরা জায়গা থেকে উদ্ধার হল এক অজ্ঞাতপরিচয় মহিলার অর্ধদগ্ধ মৃতদেহ। ঘটনা জানাজানি হতেই বৃহস্পতিবার সকালে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে বর্ধমানের কঞ্চননগরের মালিপাড়া এলাকায়। স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে বর্ধমান থানার পুলিশ প্রথম ঘটনাস্থলে পৌছয়। পরে পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের উচ্চ পদস্থ কর্তারা ঘটনাস্থলে তদন্তে যান। পুলিশ মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্যে বর্ধমান মেডিক‍্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। খুনের মামলা রুজু করে পুলিশ মহিলার মৃত্যুর ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।
কাঞ্চননগর মালিপাড়া এলাকার প্রবীণ বাসিন্দা হিমাংশু পাল বলেন, ‘মালিপাড়া বিষেবুড়ির ঢাল এলাকার ঝোপ জঙ্গলের মধ্য থেকে এক মহিলার আধপোড়া মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। এলাকার বাসিন্দা বিপদতারণ পরামাণিক এদিন ভোরে তাঁর চাষ জমি থেকে সব্জি তুলতে যাওয়ার সময়ে ওই মৃতদেহটি প্রথম দেখতে পেয়ে আঁতকে ওঠেন। তিনিই মৃতদেহের বিষয়ে গ্রামের সবাইকে জানান। গ্রামের সবাই ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখেন মহিলা এলাকার বাসিন্দা নন।’
স্থানীয় বাসিন্দাদের অনুমান, অন্যত্র কোথাও মহিলাকে খুন করে রাতের অন্ধকারে ওই ঝোপ জঙ্গল ঘেরা জায়গায় মৃতদেহ পোড়ানো হয়েছে। এলাকার কয়েক জন বাসিন্দা জানান, মহিলার আধপোড়া মৃতদেহের পাশেই পড়েছিল তিন প্যাকেট দেশলাই ও দু’টি প্লাস্টিক বোতল। পুলিশ সেগুলি উদ্ধার করেছে বলে এলাকাবাসীরা জানান। মৃতদেহ দেখে প্রত‍্যক্ষদর্শী অনেকের মনে হয়েছে, মহিলার গলায় ওড়না জাতীয় কিছু জড়ানো ছিল। মৃতদেহে বালি লেগে থাকায় অনেকের অনুমান, হয়তো দুষ্কৃতীরা দামোদরের চরেই মহিলাকে খুন করে থাকতে পারে। এ প্রসঙ্গে বিপদতরণ পরামানিক বলেন, ’এলাকার বাসিন্দাদের এমন আশঙ্কা অমূলক নয় বলেই আমারও মনে হচ্ছে। কারণ মানুষকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে গেলে কাঁচা রাস্তায় যেমন দাগ পড়ে যায়, তেমনটাই এদিন সকালে ওই ঝোপের রাস্তায় তিনি দেখতে পায়েছিলেন।’
এদিকে কোভিড আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া কোনও মহিলার দেহ রাতের অন্ধকারে পোড়ানো হল কি না সেই বিষয়টিও মালিপাড়া এলাকার বাসিন্দাদের ভাবিয়ে তুলেছে ।
জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কল্যাণ সিংহ রায় বলেন, ‘কাঞ্চননগরে এক মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। মৃতার পরিচয় এখনও জানা যায়নি । তদন্ত শুরু হয়েছে। মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ময়না-তদন্তের রিপোর্ট হাতে আসলে মহিলার মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top