প্রায় কোটি টাকা মূল্যের গাছ কেটে পাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার ৫

arrested-for-cutting-trees-at-galsi.jpg

বর্ধমান: রাস্তার দু’পাশে থাকা প্রায় ২ হাজার গাছ কেটে পাচার করা হয়েছে। পূর্ব বর্ধমান জেলার গলসি (Galsi) ২ ব্লকের মসজিদপুর অঞ্চলে এই ঘটনার অভিযোগ পেয়ে নড়েচড়ে বসেন পুলিশ-প্রশাসনের কর্তারা। পাচার হওয়া গাছের আনুমানিক বাজার মূল্য ৮০ লক্ষ টাকা। ঘটনার তদন্তে নেমে শেষমেশ পাঁচ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ধৃতদের নাম সুকুমার বিশ্বাস, মিলন বিশ্বাস, শেখ আব্বাসউদ্দিন ওরফে সাগর, নুর মহম্মদ শাহ ও শেখ সফিক ওরফে শম্ভু। ধৃতদের মধ্যে সুকুমার ও মিলনের বাড়ি ভাতার থানা এলাকায়। বাকিরা গলসি (Galsi) থানার পারাজ, তেঁতুলমুড়ি ও মসজিদপুর এলাকার বাসিন্দা।
গলসি (Galsi) থানার পুলিশ মঙ্গলবার রাতে সুকুমার ও মিলনকে তাঁদের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে। তাঁদের কাছ থেকে ১০০টি গাছের ‘লগ’ উদ্ধার হয়। এর পর তাঁদের নিয়ে পুলিশ আব্বাসউদ্দিনের কাঠের গোলায় হানা দেয়। সেখান থেকেও ২১০টি ‘লগ’ উদ্ধার হয় বলে পুলিশের দাবি। সুনির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ বুধবার ধৃতদের বর্ধমান আদালতে পেশ করে। আরও গাছ উদ্ধার ও ঘটনায় জড়িত বাকিদের হদিশ পেতে তদন্তকারী অফিসার সুকুমার, আব্বাসউদ্দিন, নুর মহম্মদ ও সফিককে পাঁচ দিন পুলিশি হেফাজতে নিতে চেয়ে আদালতে আবেদন জানান। সিজেএম ওই চার জনকে তিন দিনের পুলিশি হেফাজত ও বাকি ধৃতদের বিচার বিভাগীয় হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গলসির (Galsi) মসজিদপুর পঞ্চায়েত এলাকায় ফকিরচন্দ্র রায় রোডের দু’পাশে প্রচুর গাছ ছিল। ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ ওই সড়ক পথের দু’পাশে সোনাঝুরি, শিরিষ, বাবলা প্রভৃতি গাছ লাগিয়েছিল স্থানীয় পঞ্চায়েত। গাছগুলি অনেক দিনের পুরোনো হওয়ায় দামও ভালোই হয়েছিল। গত ৫ জুলাই থেকে ১১ জুলাইয়ের মধ্যে এমন প্রায় ২ হাজার গাছ কেটে কয়েক জন পাচার করে দেয় বলে অভিযোগ।
এলাকার বাসিন্দারা প্রথমে মনে করেছিলেন পঞ্চায়েতের অনুমতি নিয়েই গাছ কাটা হচ্ছে। পরে তাঁরা পঞ্চায়েতে খোঁজ খবর নিয়ে জানতে পারেন, গাছ কাটার ব্যাপারে পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষ কাউকে কোনও অনুমতি দেননি। গাছ কাটা নিয়ে কোনও টেন্ডারও পঞ্চায়েত ডাকেনি। এমনকী গাছ কাটার জন্য বনদপ্তরের অনুমতিও নেওয়া হয়নি। বিষয়টি জানার পর স্থানীয় বাসিন্দারা বিডিও-র কাছে অভিযোগ জানান। বিডিও তদন্ত করে অভিযোগের সারবত্তা পেয়ে ২৫ জুলাই গলসি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তিতে মামলা রুজু করে গলসি (Galsi) থানার পুলিশ পাঁচ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করল।

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top